চট্টগ্রাম, , রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১

admin

চট্টগ্রামে সাড়ে ছয় হাজার ইয়াবা: হাফেজসহ ৪ জন আটক

প্রকাশ: ২০১৭-০৮-৩০ ০৮:৪৬:০৫ || আপডেট: ২০১৭-০৮-৩০ ০৮:৪৬:০৫

বিপলু দাশ, চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে আলাদা অভিযানে সাড়ে ছয় হাজার ইয়াবাসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম মেট্রো উপ-অঞ্চলের উপ-পরিচালক শামীম আহমেদ জানান, মঙ্গলবার রাতে ও বুধবার ভোরে নগরীর সিনেমা প্যালেস ও শাহ আমানত সেতু এলাকায় আলাদা অভিযান চালিয়ে চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে সাড়ে ছয় হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

 

গ্রেপ্তাররা হলেন- শফিকুল ইসলাম (২৪), মো. ইউনুস (২২), আবু সিদ্দীক (২০), আবু ফয়াজ ওরফে জিয়াবুল (৪০)।

 

তারা জানায়, গ্রেপ্তারদের মধ্যে দুইজন নিজেদের কোরানে হাফেজ বলে পরিচয় দিয়েছেন।

 

 

অধিদপ্তরের কর্মকতা শামীম জানান, গ্রেপ্তারদের মধ্যে শফিকুল ও ইউনুস নিজেদের কোরানে হাফেজ বলে পরিচয় দিয়েছেন। তারা টেকনাফের লেদা ইউনিয়নের বাসিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, “ইউনুস মিয়ানমারের নাগিরক। লেদা রিফিউজি ক্যা¤েপ থাকেন তিনি। আর অপর দুইজন টেকনাফ পৌরসভার বাসিন্দা।”

 

শামীম বলেন, আগে থেকে খবর পেয়ে মঙ্গলবার রাতে বাকলিয়া থানার শাহ আমানত সেতু এলাকা থেকে শফিকুল ও ইউনুসকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে পেটের ভেতরে করে ইয়াবা নিয়ে নিয়ে আসার তথ্য জানান তারা। পরে তাদের কাছ থেকে দেড় হাজার ইয়াবা বের করা হয়।

 

এদিকে বুধবার সকালে কোতোয়ালি থানার সিনেমা প্যালেস এলাকা থেকে পাঁচ হাজার ইয়াবাসহ আবু সিদ্দীক ও জিয়াবুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা শামীম বলেন, পলিথিন দিয়ে ছোট ছোট পুটলি বানিয়ে ইয়বাগুলো গিলে পেটের ভেতরে করে নিয়ে আসে গ্রেপ্তার চারজন।ট্টগ্রামে সাড়ে ছয় হাজার ইয়াবা: হাফেজসহ ৪ জন আটক

 

বিপলু দাশ চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে আলাদা অভিযানে সাড়ে ছয় হাজার ইয়াবাসহ চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম মেট্রো উপ-অঞ্চলের উপ-পরিচালক শামীম আহমেদ জানান, মঙ্গলবার রাতে ও বুধবার ভোরে নগরীর সিনেমা প্যালেস ও শাহ আমানত সেতু এলাকায় আলাদা অভিযান চালিয়ে চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে সাড়ে ছয় হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

গ্রেপ্তাররা হলেন- শফিকুল ইসলাম (২৪), মো. ইউনুস (২২), আবু সিদ্দীক (২০), আবু ফয়াজ ওরফে জিয়াবুল (৪০)।

 

তারা জানায়, গ্রেপ্তারদের মধ্যে দুইজন নিজেদের কোরানে হাফেজ বলে পরিচয় দিয়েছেন।

অধিদপ্তরের কর্মকতা শামীম জানান, গ্রেপ্তারদের মধ্যে শফিকুল ও ইউনুস নিজেদের কোরানে হাফেজ বলে পরিচয় দিয়েছেন। তারা টেকনাফের লেদা ইউনিয়নের বাসিন্দা জানিয়ে তিনি বলেন, “ইউনুস মিয়ানমারের নাগিরক। লেদা রিফিউজি ক্যা¤েপ থাকেন তিনি। আর অপর দুইজন টেকনাফ পৌরসভার বাসিন্দা।”

শামীম বলেন, আগে থেকে খবর পেয়ে মঙ্গলবার রাতে বাকলিয়া থানার শাহ আমানত সেতু এলাকা থেকে শফিকুল ও ইউনুসকে আটক করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে পেটের ভেতরে করে ইয়াবা নিয়ে নিয়ে আসার তথ্য জানান তারা। পরে তাদের কাছ থেকে দেড় হাজার ইয়াবা বের করা হয়।

এদিকে বুধবার সকালে কোতোয়ালি থানার সিনেমা প্যালেস এলাকা থেকে পাঁচ হাজার ইয়াবাসহ আবু সিদ্দীক ও জিয়াবুলকে গ্রেপ্তার করা হয়। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তা শামীম বলেন, পলিথিন দিয়ে ছোট ছোট পুটলি বানিয়ে ইয়বাগুলো গিলে পেটের ভেতরে করে নিয়ে আসে গ্রেপ্তার চারজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *