চট্টগ্রাম, , রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১

admin

ঈদের নামাজে সারাদেশে নিরাপত্তা দেবে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী

প্রকাশ: ২০১৭-০৯-০১ ০৯:৩৭:৪৬ || আপডেট: ২০১৭-০৯-০১ ০৯:৩৭:৪৬

বীর কন্ঠ ডেক্স: আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সারাদেশে ঈদের নামাজে ঈদগাহগুলোতে নিরাপত্তা দেবে বলে জানিয়েছেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ।

তিনি বলেন, র‌্যাবের পক্ষ থেকে এজন্য এবার থাকবে বিশেষ পরিকল্পনা। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় অন্যান্য বাহিনীর সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ করবে র‌্যাব।

শুক্রবার দুপুরে রাজধানীর মেরুল বাড্ডা এলাকার আফতাবনগর পশুর হাট পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি।

র‌্যাব মহাপরিচালক বলেন, জাতীয় ঈদগাহসহ রাজধানীর ঈদগাহগুলোতে বিশেষ নিরাপত্তা দেওয়া হবে। শৃঙ্খলা রক্ষা ও নিরাপত্তার স্বার্থে জায়নামাজ ব্যতীত অন্যকিছু না নিয়ে আসার জন্য মুসুল্লিদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

তিনি বলেন, অন্যান্যবারের তুলনায় এবারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরালো রয়েছে। হাটে এসে ক্রেতা-বিক্রেতাদের সঙ্গে আমাদের কথা হয়েছে। তারা নিরাপত্তা নিয়ে সন্তুষ্ট। বিশেষ করে ব্যবসায়ীরা নিরাপত্তা নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন।বেনজীর বলেন, ব্যবসায়ীদের পশু আনা-নেওয়া ও তাদের চলাফেরার ক্ষেত্রে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সহযোগিতা করছে।

ব্যবসার মূলধন ও পশু বিক্রি শেষে নগদ টাকা নিয়ে ব্যবসায়ীরা বাড়ি ফেরার ক্ষেত্রে রাস্তায় যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য পদক্ষেপের বিষয়ে র‌্যাবের ডিজি বলেন, নগদ টাকা বহনে কোনো ব্যবসায়ী নিরাপত্তাহীনতা বোধ করলে ডিএমপির মানিস্কট টিম রয়েছে। র‌্যাবের মোবাইল টিম রয়েছে, তাদের সহযোগিতা নিতে পারে। তাছাড়া বড় বড় পশুর হাটগুলোতে ব্যাংকের ভ্রাম্যমাণ বুথ রয়েছে। ব্যবসায়ীরা ব্যাংকে লেনদেন করতে পারেন।

ঈদে রাজধানীর যত্রতত্র স্থানে কোরবানির পশু জবাই না করার অনুরোধ জানিয়ে বেনজীর বলেন, সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক নির্ধারিত স্থানে পশু জবাই করুন। যথাযথ নিয়ম-কানুন পালন করলে নগরবাসীই উপকৃত হবেন।পশু কোরবানির জন্য বিভিন্ন স্থানে চাপাতি ও ছুরি কেনাবেচা চলছে, তা পর্যকবেক্ষণ করা হচ্ছে বলেও এ সময় জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, ঈদে রাজধানী সাধারণত ফাঁকা হয়ে যায়। পশু কোরবানিতে ব্যবহৃত ধারালো অস্ত্র ক্রয় করে অপরাধীরা যেন কোনো অপরাধকর্মে ব্যবহার করতে না পারেন, সেজন্য নজরদারি রাখা হচ্ছে।

 

তথ্য: জাগোনিউজ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *