চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ২০ মে ২০২২

admin

বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় চার জনকে দল থেকে বহিষ্কার 

প্রকাশ: ২০১৭-১১-০৩ ১৮:৩৩:৫০ || আপডেট: ২০১৭-১১-০৩ ১৮:৩৩:৫০

বীর কন্ঠ ডেস্ক: 

মোটরসাইকেল বহরের সিরিয়াল ভাঙাকে কেন্দ্র করে বৃহস্পতিবার রাতে বান্দরবান জেলা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় চার জনকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উ শৈ সিং এর ছেলেকে সংবর্ধনা দেওয়ার গাড়িবহরে এ ঘটনা সূত্রপাত। জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি কাউসার সোহাগ এ তথ্য জানিয়েছেন।

 

তিনি জানান, সমাবেশ শেষে জুনিয়রদের মধ্যে একটি অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। রাত ৮টায় জেলা ছাত্রলীগের এক সভায় ওই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে চার জনকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে।

 

বহিষ্কৃতরা হলেন-জেলা ছাত্রলীগের সদস্য জুনায়েদ হাসান, সাইফুল ইসলাম আকাশ, শুভ দাস এবং মামুনুর রশিদ।পুলিশ ও দলীয় সূত্রে জানা যায়,প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উ শৈ সিং এর ছেলে রবিন বাহাদুরের সংবর্ধনার গাড়িবহরে মোটরসাইকেলের সিরিয়াল ব্রেকের ঘটনাকে কেন্দ্র করে আকাশ ও ফাহিমের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এ ঘটনার জের ধরে ফাহিম ক্যায়ংয়ের মোড়ে গিয়ে আকাশকে চড়-থাপ্পড় মারেন। পরে আকাশের সমর্থকরা রাজার মাঠে গিয়ে ফাহিমকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে উভয় পক্ষের মধ্যে মারামারি লেগে যায়।  

এ ব্যাপারে আকাশ বলেন, ‘র‌্যালিতে ফাহিম আমার উপর রেগে যান এবং এ নিয়ে আমাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়, ঘটনা ওখানেই শেষ। কিন্তু পরে উনি ক্যায়ংয়ের  মোড়ে আমার শার্টের কলার ধরে থাপ্পড় মারে।

 

এ ঘটনায় রাতে ৯ জনকে অভিযুক্ত করে সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন ফাহিম। অভিযুক্তরা হলেন-শুভ দাশ, সাইফুল ইসলাম আকাশ, জোনায়েদ হোসেন, শাহীন, হাসান, জনি, পরশ, তানজীদ এবং টিটু।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে জেলা ছাত্রলীগের অফিস এবং শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পুলিশের বিশেষ দল মোতায়েন রয়েছে।

 

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রফিক উল্লাহ বলেন, ‘বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। যে কোনও সময় অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।’—-বাং লা ট্রিবিউন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *