চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ২০ মে ২০২২

admin

বান্দরবানে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের মহা পিন্ডদান উৎসবমুখর পরিবেশে পালিত 

প্রকাশ: ২০১৭-১১-০৪ ১৯:৪৪:৩০ || আপডেট: ২০১৭-১১-০৪ ১৯:৪৪:৩০

বীর কন্ঠ ডেস্ক:

বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের ঐতিহ্যবাহী মহা পিন্ডদান উৎসব বান্দরবানে বর্ণাঢ্য আয়োজনে উৎসবমুখর পরিবেশে পালিত হয়েছে। এতে অংশ নেন বান্দরবানের বিভিন্ন বৌদ্ধ বিহারের শতাধিক বৌদ্ধ ভিক্ষু। এই উৎসবে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীরা পূণ্য লাভের আশায় বৌদ্ধ ভিক্ষুদের মাঝে ভাতের পিন্ডসহ নানা সামগ্রী উৎসর্গ করে থাকেন।শনিবার বান্দরবানের বিভিন্ন বৌদ্ধ মন্দিরের শাতাধিক বৌদ্ধ ভিক্ষু এই পিন্ডদান উৎসবে অংশ নেয়। 

৩ মাস বর্ষাবাস শেষে বৌদ্ধ মন্দিরগুলোতে কঠিন চীবর দান উৎসবের পর বৌদ্ধ ভিক্ষুদের সম্মানে দায়ক দায়িকারা এই মহা পিন্ডদান উৎসবের আয়োজন করেন।আগে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে এই উৎসবের আয়োজন হয়ে থাকলেও এখন বাংলাদেশসহ পার্শ্ববর্তী মিয়ানমার ও থাইল্যান্ডে এই উৎসবের প্রচলন রয়েছে।

সকালে বান্দরবান শহরের জাদী পাড়া, উজানী পাড়া মধ্যমপাড়া, রাজবাড়ি এলাকায় বৌদ্ধ ভিক্ষুরা দায়ক দায়িকাদের কাছ থেকে পিন্ড গ্রহণ করেন। পূণ্য লাভের আশায় ধর্মাবলম্বীরা ভিক্ষুদের পিন্ড দানের পাশাপাশি নানা প্রকার মিষ্টান্নও দান করেন। এছাড়া বৌদ্ধ ভিক্ষুদের সামনে থাকা বৌদ্ধ মূর্তিতে পূজাও দেয়া হয়।

মহা পিন্ডদানকে ঘিরে বান্দরবান শহরের উজানী পাড়া মধ্যমপাড়া এলাকায় উৎসবের আমেজ ছিল। নানা রঙে সাজানো হয় বৌদ্ধ মন্দিরগুলো।রাস্তার দু’ধারে নানা রঙের প্যান্ডেল টানানো হয়। পার্বত্য মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে ভিক্ষুদের দান উৎসর্গ করেন। আষাঢ়ি পূর্ণিমা থেকে আশ্বিনী পূর্ণিমা পর্যন্ত বৌদ্ধ মন্দিরগুলোতে বর্ষাবাস পালন করা হয়।

 

এরপর কঠিন চীবর দান উৎসব ও সর্বশেষে মহা পিন্ডদান উৎসবের আয়োজন করা হয়ে থাকে। পিন্ডদান উৎসব দেখতে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের পাশাপাশি পর্যটক ও দর্শনার্থীরা ভিড় জমায় বান্দরবান শহরে। যুগ যুগ ধরে বান্দরবানে এই উৎসব চলে আসছে।—-পরিবর্তন

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *