চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২১

Alauddin Lohagara

বটতলী শহর অগোছালো সমালোচনা

প্রকাশ: ২০১৭-১২-২১ ২১:২০:৩১ || আপডেট: ২০১৭-১২-২১ ২১:২০:৩১

সাজ্জাদ হোছাইন:

বটতলী বটগাছের অস্তিত্ব আগে থাকলেও এখন নেই সেটা স্পষ্ট প্রতীয়মান ।বন্দরনগরী থেকে ৬০ কিমি দক্ষিণের ২৫৮.৮৭ বর্গকিলোমিটার এলাকা নিয়ে লোহাগাড়া উপজেলা গঠিত যার রাজধানী বটতলী মটর ষ্টেশন ।

বলছিলাম ,বটতলীর বটগাছের কথা । বিগত দশ বছরের কথা ধরুন ,আমাদের লোহাগাড়া উপজেলায় রাজনৈতিক ,সামাজিক অনেক পরিবর্তন হয়েছে ।অবকাঠামোগত দিক দিয়ে এসেছে বিশাল পরিবর্তন । আমার মতে লোহাগাড়া ষ্টেশনের মতো দক্ষিণ চট্টগ্রামের আর কোন এলাকায় এত দ্রুত আবাসিক ভবন গড়ে উঠেনি ।এটা আমাদের এই ষ্টেশনকেন্দ্রীক আর্থিকখাতের জন্য বিরাট সুযোগ ।

 

তবে চিন্তা এবং হতাশার বিষয় হচ্ছে আমরা লোহাগাড়াবাসী এখনো লোহাগাড়াপ্রিয় যোগ্য নেতৃত্বের অভাবে ভোগছি । এটা আমার লোহাগাড়া ,আমার ষ্টেশন .এটা আমার দেহ বা আমার মাটি বলার মতো কেউ কেন আসেনি সেটা আধ্যত্নিক প্রশ্ন তবে আসেনি সেটা বাস্তবতা ।সমালোচকরা বলবেন অমুক এই করেছে ,সে করেছে আপনি কারো নামই বলেননি ।তাদের প্রতি আমার বক্তব্য তারা না করলে এগুলো করছে কে ? নিশ্চয় কেউ না কেউ তো করেছে ?কিন্তু একটা কিন্তু থেকেই যায় সেটা হলো স্থানীয় সরকারের নিয়মতান্ত্রিক কাজই তারা করে গেছে এর বাইরে শুধু চেয়ারটা দখলে রেখেছে জনগনের ভালবাসায় ।

 

সময় বদলেছে ,৫ তলা থেকে ১০ তলা হচ্ছে কিন্তু পরিকল্পনা শুন্যসার ।বিল্ডিং এর পিলার রাস্তাতে আসুক কিংবা ছাদের পানিতে রাস্তা ভেঙ্গে যাক কেউ নেই দেখার ।

 

আহা বটতলী শহর ,বেওয়ারিশ লাশের মতো ডিজিটালের ১০ বছরেও একটি ড্রেন পেলো না এমনিক সবচাইতে লজ্জার বিষয়

 

লোহাগাড়ার জন্য সিট নাই ?এ বাক্যটি লোহাগাড়াবাসীর নিকট অতি পরিচিত । অথচ লোহাগাড়ার কোন নেতার ক্ষমতাবলে আরেকটি পরিবহন কাউন্টার কেন আসলো না ?

 

বর্তমান ক্ষমতাসীনরা কি এতই দুর্বল বা তারা কি আমাদের দুর্ভোগ সম্পর্কে এতই উদাসীন যে তারা আমাদের জন্য একটি পরিবহন কাউন্টার এর ব্যাবস্থা করে দিতে পারেন না ?

 

নাকি সেখানেও বিনিয়োগের হিসাব নিকাশ ?

 

বাসকাউন্টারের দাবী যেখানে বাতুলতা সেখানে বাসটার্মিনাল ?হা হা হা ।

 

তবে এত সমালোচনার পরে আশার দিক হলো লোহাগাড়ার ব্যাস্ততম এবং বাণিজ্যিক সংযোগ সডকগুলোর সংস্কার হয়েছে যার জন্য বিশেষ ধন্যবাদ মাননীয় এমপি মহোদয়কে ।

 

সম্ভাবনার লোহাগাড়াকে আরো উজ্জল করা দরকার । বাণিজ্যিক সুবিধা বাড়ানোর জন্য সেবার মানবৃদ্ধি করা দরকার ।

আমাদের রয়েছে বিশাল পর্যটন এলাকা চুনতী ,এই অঞ্চলের পর্যটন সুবিধা বাড়ানোগেলে আমাদের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধিগড়বে বহুগুন ।

 

আইনশৃঙ্কলার বিষয়টি সবচেয়ে মারাত্মক চিন্তার বিষয় ।আমাদের লোহাগাড়ার অন্যতম বৈষিষ্ট্য হচ্ছে মানুষ এখনো ব্যাংক থেকে লাখ টাকা হাতে নিয়ে নিশ্চিন্ত মনে নামে ,মানুষের মনে এখনো এ বিশ্বাস বিদ্যমান যে আমাদের এলাকায় এখনো ছিনতাই হবে না ।

 

কিন্তু সম্প্রতি এই চিন্তার নীড়ে চিড় ধরেছে ,ছিনতাইকারী চক্র সক্রিয় হচ্ছে নানা ভাবে ।ডিসেম্বর ১০/১৭ এর শুরুতে কাঁচাবাজারের এক সুপারী ব্যাবসায়ীর কাছ থেকে অভিনব কায়দায় ২৯হাজার টাকা চিনিয়ে নেয় , নভেম্বরে বদিউর রহমান মার্কেটের সামনে সাহেব বাজার থেকে আওয়ামীলীগের নামে চাঁদাবাজি করার সময় ২জনকে আটক করে স্থানীয়রা ।

তাছাড়া রাজনৈতিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি চলে না এমনটি বলাও মুশকিল ।

 

তবে সবচেয়ে কমনবিষয় হচ্ছে মাদক ।আমাদের লোহাগাড়ায় যার প্রসার ঘটছে বুলেট গতিতে । আইনশৃঙ্কলা বাহিনীর পাশাপাশি সামাজিক ব্যক্তিবর্গ যদি এখন থেকেই সজাগ না হন তাহলে তাদের সন্তান এবং বর্তমান প্রজন্ম ইয়াবাপ্রজন্ম হিসাবেই গড়ে উঠবে ।

 

লেখক: অনলাইন এক্টিভিষ্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *