চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২

Alauddin Lohagara

জলবায়ু জনিত ক্ষতি হ্রাসে মাতামুহুরী নদী দখল মুক্ত করতে হবে

প্রকাশ: ২০১৮-০২-২২ ১৯:১৭:৫২ || আপডেট: ২০১৮-০২-২২ ১৯:১৭:৫২

চকরিয়ায় অফিস :

চকরিয়ায় জলবায়ুজনিত ক্ষতি হ্রাসের এক আলোচনা সভায় প্রভাবশালী কর্তৃক দখল করে বন্ধ করে দেয়া মাতামহুরী নদীসহ শাখা নদী ও খালগুলো খুলে দিয়ে পানি চলাচলের প্রতিবন্ধকতা দূর করার দাবী উঠে এসেছে। বেসরকারী সংস্থা কোষ্ট ট্রাস্ট কর্তৃক আয়োজিত ‘উপকূলীয় জলবায়ুজনিত ক্ষতি হ্রাসের জন্য বাজেট বৃদ্ধি’ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তারা এসব দাবী তুলে আনেন।

 

২২ ফেব্রুয়ারি সকাল ১০টায় উপজেলা প্রশাসনের মিলনায়তন রুমে এ আলোচনা সভা উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সাইফুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

বৃটিশ কাউন্সিলের সহায়তায়, বেসরকারী সংস্থা কোষ্ট ট্রাস্টের বাস্থবায়নে ‘জলবায়ু অর্থায়ন ও বাস্তবায়নে স্বচ্ছতা অর্জন কৌশল’ প্রকল্পের আলোচনা সভায় প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এই প্রকল্পের টিম লিড়ার মকবুল আহমেদ, বক্তব্য রাখেন ফাশিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, সাহারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মহসিন বাবুল ও চিরিঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, চকরিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যক্ষ একেএম গিয়াস উদ্দিন, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ আতিক উল্লাহ, সমাজ সেবা কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ, ইঞ্জিনিয়ার রনি সাহা, ইঞ্জিনিয়ার হারুনুর রশিদ সওদাগর, চকরিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক জহিরুল ইসলাম, এনজিও সমন্বয়ক মোহাম্মদ নোমান, শিক্ষক মাহামুদুল হক, প্রকল্প মনিটর অফিসার আবু কায়সার, সাংবাদিক আবদুল মজিদ, জাহেদ প্রমুখ।

 

বক্তারা মাতামুহুরী নদীর দু’তীরে টেকসই বেড়িবাধ নির্মাণ ও বহুমুখী ব্যারেজ নির্মাণ করার উপর গুরুত্বারোপ করেন। মাতামুহুরী নদী ড্রেজিং করলেই সমস্যার সমাধান হবে না। ড্রেজিং করলে হয়তো গুটি কয়েক ঠিকাদার ও সংশ্লিষ্টরাই লাভবান হবেন। এক বছর ড্রেজিং করলে পরের বছর বর্ষায় আবার ভরাট হয়ে যাবে। যেটি করতে হবে তা হলো মাতামুহুরী নদীকে প্রভাবশালীদের কবল থেকে দখল মুক্ত, বন্ধ করে দেয়া খাল বা শখা নদী গুলো খুলে দেয়া, ক্ষতিকর তামাক চাষ, পাথর উত্তোলন, অপরিকল্পিত জুম চাষসহ মাতামুহুরী নদীর উৎস্থল পাহাড়ে পরিবেশ বিধ্বংসী কর্মকান্ড বন্ধ করে প্রাকৃতিক ভারসাম্য ফিরিযে আনতে হবে। তাছাড়া উপকূলীয় ইউনিয়ন গুলোতে বন্ধ করে দেয়া খালগুলো খুলে দেয়া, খাল খনন, প্রয়োজনীয় সাইক্লোন সেল্টার নির্মাণ, বেড়িবাধ উচু করণ, বেড়িবাধের পাশে বৃক্ষ রোপন, স্লুইচ গেট নির্মাণ ও প্যারাবন সৃজনের কথা উঠে আসে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *