চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

Faruque Khan Executive Editor

গত চব্বিশ বছর দেশে ফিরতে চাইছি, কোনও সরকারই দিচ্ছে না ফিরতে : তসলিমা নাসরিন

প্রকাশ: ২০১৮-০৭-০৯ ২০:৪০:৩৬ || আপডেট: ২০১৮-০৭-০৯ ২০:৪০:৩৬

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিন বলেছেন, ‘ধর্মান্ধ পুলিশ বা কয়েদি আমাকে খুন করতে পারে।’

গত ৮ জুলাই, রবিবার নিজের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি ও আত্মগোপনে থাকার স্মৃতিচারণ করে তার ভেরিফায়েড ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে একটি স্ট্যাটাসে এ কথা বলেছেন লেখিকা।

আত্মগোপনে থাকা সময়ের ছবিটি লেখিকা তার ফেসবুকে পোস্ট করেছেন

বিশিষ্ট নারীবাদী এই লেখিকা ১৯৯৪ সালে আত্মগোপনে থাকা সময়ের একটি ছবি পোস্ট করে তিনি লিখেছেন, ‘জুন, ১৯৯৪ সাল। আত্মগোপন অবস্থায় আমি। খালেদা জিয়া সরকার আমার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করার পর আত্মগোপন করার পরামর্শ দিয়েছিলেন ল’ইয়ার। আত্মগোপনের পক্ষে ছিলাম না আমি। গ্রেফতার করলে করবে, বলেছিলাম।

লইয়ার বললেন, পুলিশ তো নয়ই, জেলও নাকি আমার জন্য নিরাপদ নয়, ধর্মান্ধ পুলিশ বা কয়েদি আমাকে খুন করতে পারে। কেন গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয়েছিল? সরকার আমার বিরুদ্ধে মামলা করেছিল, তাই। কেন মামলা করেছিল? আমার লেখালেখি নাকি ধর্মান্ধ গোষ্ঠীর মনে আঘাত দিয়েছিল, তাই। ধর্মান্ধরা ঢাকা শহরে প্রায় প্রতিদিন মিছিল করছিল আমার ফাঁসির দাবিতে। মিছিলে দশ বিশ এমনকী পঞ্চাশ হাজার লোক হতো। আমি অন্তরীণ থাকা অবস্থায় সারা দেশ থেকে ঢাকায় আসার জন্য লং মার্চ করেছিল মোল্লারা, মানিক মিয়া এভিনিউতে জনসভা হয়েছিল চার লক্ষ লোকের।

একটিই দাবি, তসলিমার মৃত্যুদণ্ড চাই। পুলিশ আমাকে খুঁজে পাচ্ছে না, মোল্লারা ঘোষণা করে দিয়েছে, বাড়ি বাড়ি ঢুকে আমাকে খুঁজবে ওরা। আমাকে পেলে আইন নিজের হাতে তুলে নেবে। আমি কি সে কারণেই উদ্বিগ্ন? চোখে মুখে কি ভয় আমার? ভয় যদি পাবো, তবে এত ভয়ংকর ঘটনা ঘটার পর কেন আমি দেশেই থাকতে চেয়েছিলাম? জামিন পাওয়ার পর গভীর রাতে পুলিশই তো তুলে নিয়ে গিয়ে বিমানে বসিয়ে দিল!

এই যে গত চব্বিশ বছর দেশে ফিরতে চাইছি, কোনও সরকারই দিচ্ছে না ফিরতে, ভয় পেলে ফিরতেই বা চাইতাম কেন?’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *