চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর ২০২২

Faruque Khan Executive Editor

পটিয়ায় প্রত্যয়ের অষ্টম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদ্যাপন 

প্রকাশ: ২০১৮-০৭-২৯ ০০:০১:৪৩ || আপডেট: ২০১৮-০৭-২৯ ০০:০১:৪৩

আবদুল হাকিম রানা, বীর কন্ঠ :

পটিয়ার স্বনামধন্য শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক চর্চার বিশেষায়িত প্রতিষ্ঠান প্রত্যয় শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক একাডেমির অষ্টম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী অনুষ্ঠান গত শুক্রবার পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। কথামালা ও শুভেচ্ছা জ্ঞাপন, গুণীজন সংবর্ধনা, প্রতিযোগিতা ও পুরষ্কার বিতরণ, শিক্ষা উপকরণ বিতরণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সহ নানান আয়োজনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদ্যাপন করা হয়। শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক চর্চার মধ্যে আলোকিত মানুষ, সৃজনশীল নেতৃত্ব শ্লোগান নিয়ে আয়োজিত উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পটিয়া পেীরসভার মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশিদ।

তিনি বলেন ছাত্র-ছাত্রীদের মানুষের মত মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হলে শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক চর্চার কোনো বিকল্প নেই।  প্রত্যয় একাডেমির তরুণ সদস্যদের প্রচেষ্ঠায় বিভিন্ন বিষয়ে প্রশিক্ষণের পাশাপাশি বিভিন্ন শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড আয়োজন করে ছাত্রছাত্রীদের মেধা ও সৃজনশীলতা চর্চার সুযোগ করে দিচ্ছে।

এজন্য আমি তাদের সাধুবাদ জানাই। তিনি আরো বলেন, সিরু বাঙালি ও জেসমিন সুলতানা পারু হচ্ছে পটিয়ার দুই রত্ন ও কিংবদন্তী। যাদের অবদান আজ জাতীয়ভাবে স্বীকৃত। একজন মুক্তিযুদ্ধের কমান্ডার হয়ে দেশকে স্বাধীনতা উপহার দিয়েছেন। অন্যজন সমাজে পিছিয়ে পড়া নারীদের অগ্রধূত হিসেবে কাজ করছেন। একাডেমির নিবার্হী পরিচালক মো. আবদুল্লাহ ফারুক রবি’র সঞ্চালনায় ও উপদেষ্টা অধ্যক্ষ মুহাম্মদ আবু তৈয়ব এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য ও শুভেচ্ছা জানান মুক্তিযুদ্ধের কমান্ডার, লেখক ও গবেষক সিরু বাঙালি, নারীনেত্রী ও সমাজসেবী জেসমিন সুলতানা পারু, অধ্যাপক অজিত মিত্র, মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মান্নান, খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি রেজাউল কবির,পটিয়া আইন কলেজের শিক্ষক যদু রঞ্জন চেীধুরী, নাবিলা এন্ড সৈয়দ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান এস এম হারুনুর রশিদ, মাষ্ঠার শ্যামল দে, কবি জামাল উদ্দিন, শিশু সংগঠক আলমগীর আলম, পটিয়া গৌরব সংসদের সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ দাশ, মজিবর রহমান, একাডেমির সদস্য এমরান হোসেন রাসেল, শুকান্ত দাস, সাকিবুল হাসান ও নৃত্যঞ্চলের সভাপতি অমিত চক্রবর্ত্তী প্রমুখ।

একাডেমির ৮ম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রাখার জন্য নারীনেত্রী ও সমাজসেবী জেসমিন সুলতানা পারু ও  লেখক, গবেষক ও মুক্তিযুদ্ধের কমান্ডার সিরাজুল ইসলাম (সিরু বাঙালি) কে সংবর্ধনা প্রধান করা হয়। পরে তারা নিজ নিজ অনুভূতি ও তাদের জীবন কাহিনী অনুষ্ঠানে আগত শিক্ষার্থী ও দর্শকদের বর্ননা দেন। অষ্টম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে্ আয়োজিত চিত্রাংকন ও সংগীত প্রতিযোগিতায় ২৫ জন প্রতিযোগীকে পুরষ্কার প্রদান করা হয়। সংগঠন চর্চায় বিশেষ ভূমিকার জন্য একাডেমির সদস্য বাপ্পা ঘোষ, মুহাম্ম শহিদুল ইসলাম ও মোহাম্মদ শাহেদ সেরা সংগঠক নির্বাচিত হয়।  অনুষ্ঠানে ২৫ দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীকে ১ বছরের শিক্ষার উপকরণ প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের শেষে অমিত চক্রবর্ত্তির পরিচালনায় নৃত্যঞ্চলের শিক্ষার্থীরা নৃত্য পরিবেশন করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *