চট্টগ্রাম, , বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২২

admin

হত্যা মামলায় ধোপাছড়ির চেয়ারম্যান মোরশেদ কারাগারে 

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১২ ২২:৩৯:৪৯ || আপডেট: ২০১৮-০৮-১২ ২২:৩৯:৪৯

এসএম রাশেদ, চন্দনাইশ :

চন্দনাইশ উপজেলা শ্রমিকলীগ নেতা খোকা হত্যা মামলায় ১২ আগষ্ট ১০নং ধোপাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান এম মোরশেদুল আলম চট্টগ্রাম জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মো. হেলাল উদ্দিনের আদালতে আত্মসমপন পূর্বক স্থায়ী জামিন চাইলে আদালত তার জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দিয়েছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ৪ এপ্রিল বিকালে জায়গা সম্পত্তি বিরোধের জের ধরে ধোপাছড়ি চিড়িংঘাটা এলাকায় উপজেলা শ্রমিকলীগ নেতা নুরুল ইসলাম খোকাকে প্রতিপরে লোকজন গুলি করে, ছুরিকাঘাত, রড, হ্যামার, কিরিচ দিয়ে আঘাত করে হত্যা করে। এ ব্যাপারে খোকার ভাই জমিরুল ইসলাম বাদি হয়ে ধোপাছড়ির ইউপি চেয়ারম্যান মোরশেদুল আলমসহ ১৭ জনের নাম দিয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। সে মামলার সূত্র ধরে পুলিশ এজাহার নামীয় ৭ আসামীকে আটক করে পুলিশ। আটককৃতদের মধ্যে মো.নাসির উদ্দিন, মো. কাইসার, নুর হোসেন আদালতে স্বেচ্ছায় ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দেয়।  ইউপি চেয়ারম্যান মোরশেদুল আলম গত ১২ এপ্রিল মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগে আত্মসমর্পন পূর্বক আগাম জামিনের প্রার্থনা করলে হাইকোর্ট বেঞ্চ ৪ সপ্তাহের  জন্য জামিনের আদেশ দেন। গত ১১ মে মেয়াদ শেষ হওয়ার পর চেয়ারম্যান মোরশেদ আদালতে আত্মসমর্পন না করায় গত ১০ জুন ধার্য্য তারিখে আদালত মোরশেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারী করেন। চেয়ারম্যান অসুস্থ হওয়ার সুবাধে গত ১৮ জুলাই পুণরায় মহামান্য হাইকোর্র্টে জামিনের প্রার্থনা করলে আদালত পরবর্তী ১ সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্ট আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন। উক্ত আদেশের প্রেেিত চেয়ারম্যান মোরশেদ গত ২৪ জুলাই চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে আত্মসমর্পন করলে আদালত শুনানি শেষে  ১২ আগস্ট ধার্য্য তারিখ পর্যন্ত অস্থায়ী জামিন মঞ্জুর করেন। ১২ আগস্ট (রবিবার) আসামি চেয়ারম্যান মোরশেদের পে জামিন স্থায়ী করার প্রার্থনা জানান। অপরদিকে বাদী প আসামীর জামিন বাতিলের প্রার্থনা জানিয়ে আবেদন করেন। উভয় পরে শুনানি শেষে আদালত আসামী মোরশেদের অস্থায়ী জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরনের নির্দেশ দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *