চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২

admin

চাঁদাবাজির প্রতিবাদে খাগড়াছড়িতে জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১৩ ২১:০৭:০৪ || আপডেট: ২০১৮-০৮-১৩ ২১:০৭:০৪

খাগড়াছড়ি,প্রতিনিধি:

খাগড়াছড়ি জেলা সদরের পেরাছড়া থেকে ভাইবোনছড়া পর্যন্ত সন্ত্রাসী কায়দায় গ্রামীণ দোকানপাট বন্ধ করে দেয়া এবং চাঁদাবাজি প্রতিরোধসহ তিন দফা দাবিতে জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি দিয়েছেন পাহাড়ি নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিরা।

সোমবার (১৩ আগস্ট) দুপুরে সন্ত্রাস কবলিত এলাকার কয়েক’শ বাসিন্দা নবাগত জেলা প্রশাসক মো: শহীদুল ইসলামের হাতে তাঁর কার্যালয়ে এই স্মারকলিপি হস্তান্তর করেন।

স্মারকলিপিতে অভিযোগ করা হয়, একটি চিহ্নিত সন্ত্রাসী গ্র“প দেওয়ানপাড়ায় অবস্থান করে প্রকাশ্য দিবালোকে রাস্তায় গাড়ি থামিয়ে চাঁদা তুলছে। গিরিফুল থেকে পানছড়ি পর্যন্ত সকল দোকানপাট (ভাইবোনছড়া বাজার ছাড়া) বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে এবং প্রত্যেক দোকানদারের কাছ থেকে মোটা অংকের চাঁদা দাবি করেছে। তাদের নির্দেশ অমান্যকারীকে প্রাণনাশ করা হবে বলে তারা হুমকি দিয়েছে।

জেলা প্রশাসক মো: শহীদুল ইসলাম স্মারকলিপি পাবার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রতিটা মানুষের জীবন ও সম্পদের নিরাপত্তা বিধানে প্রশাসন আন্তরিক পদক্ষেপ নেবে। এরই সংশ্লিষ্ট সকলকে বিষয়টি গুরুত্বসহ দেখার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এদিকে ইউনাইটেড পিপল্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) খাগড়াছড়ি জেলা ইউনিটের প্রধান সংগঠক উজ্জ্বল স্মৃতি চাকমা সংবাদ মাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে অভিযোগ করেন, স্মারকলিপি দিয়ে ফেরার পথে জেলা শহরের মহাজনপাড়া এলাকায় গাড়ি থামিয়ে সন্ত্রাসীরা চার গ্রামবাসীকে তুলে নিয়েছে। তিনি এই উক্ত ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে আটককৃতদের উদ্ধারে তড়িৎ কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি জানিয়েছেন।

তবে,ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্টতা অস্বাকীর করে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি ( জেএসএস-এমএন লারমা) এর কেন্দ্রীয় সহ-তথ্য ও প্রচার সম্পাদক প্রশান্ত চাকমা জানান, এই ঘটনার সাথে আমাদের পার্টি কোন ভাবেই জড়িত নই এবং বিষয়টি আমাদের জানা নেই। উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে বিষয়টি আমাদের উপর চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *