চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২

admin

পটিয়ায় বাল্য বিবাহ টেকিয়ে দিলেন নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১৩ ২২:১১:০০ || আপডেট: ২০১৮-০৮-১৩ ২২:১২:৪৩

আবদুল হাকিম রানা, বীর কন্ঠ : 

পটিয়ার ফোর স্টার কমিউনিটি সেন্টারে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে একটি বাল্য বিবাহ টেকিয়ে দিয়েছেন পটিয়া সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মিল্টন রায়। তিনি পটিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রাসেলুল কাদেরের অনুরোধক্রমে সংশ্লিষ্ট এ কমিউনিটি সেন্টারে দুপুর ১২ টায় উপস্থিত হন। এতে বাল্য বিবাহের প্রমাণ পাওয়ায় ৪ জনকে আটকও করেন। পরে অবশ্য আটকৃতরা মুছলেকা দিয়ে ছাড়া পান বলে সূত্রে প্রকাশ।

জানা যায়, চন্দনাইশের বদুর পাড়ার এক প্রবাসীর মেয়ে আনিকা আলীর সাথে পটিয়ার লালার খীলের এক যুবকের বিয়ে ছিল গতকাল পটিয়ার চক্রশালার ফোর স্টার কমিউনিটি সেন্টারে। এক বিশ্বস্থ সূত্রে পটিয়ার ইউএনও’র কাছে বাল্য বিবাহ হচ্ছে মর্মে অভিযোগ আসায় তিনি এ সংক্রান্তে সরেজমিন ব্যবস্থা নিতে সহকারী কমিশনার ভূমি কে অনুরোধ করেন। পরে সহকারী কমিশনার ভূমি ফোর স্টার কমিউনিটি সেন্টারে উপস্থিত হয়ে এ সংক্রান্তে জানতে চাইলে কনে পক্ষ মেয়ের বয়স ১৬ বছর বলে জানান। তবে সার্টিফিকেট অনুযায়ী তার বয়স ১৪ বলে সহকারী কমিশনার ভূমি নিশ্চিত হন এবং এ নিয়ে বেশী বাড়াবাড়ি করার চেষ্টা করায় তিনি তাৎক্ষণিক ৪ জনকে আটক করেন। পরে অবশ্য মেয়ের মা সহ সংশ্লিষ্টরা নির্দিষ্ট বয়সের পূর্বে বিয়ে দিবে না মর্মে অঙ্গীকার করে মুছলেকা দিলে আটককৃতদের ছেড়ে দেয়া হয়। এব্যাপারে জানতে চাইলে পটিয়ার সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মিল্টন রায় বলেন, অভিযোগের ভিত্তিতে বাল্য বিবাহের প্রমাণ পাওয়ায় যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তবে তারা নির্দিষ্ট বয়সের পূর্বে আর মেয়ে বিয়ে দিবে না মর্মে অঙ্গীকার করায় এবং আজ থেকে মেয়ে স্কুলে পাঠাবেন মর্মে মুছলেকা দেওয়ায় আটকৃতদের ছেড়ে দেওয়া হয়। জানা যায়, মেয়ে চন্দনাইশের একটি স্কুলের ৯ম শ্রেণীর ছাত্রী।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *