চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯

admin

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে উৎসর্গ করে জোবাইদা আব্বাস ঝিনুকের কবিতা

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১৪ ১৩:৫৭:৩৮ || আপডেট: ২০১৮-০৮-১৪ ১৩:৫৭:৩৮

বঙ্গবন্ধু

এক স্বর্ণ ঈগল পাখা মেলেছিল বাংলার আকাশে
উড়ছিল উড়ছিল দুরন্ত।
নিঃসীম আকাশে হলো তুমুল বজ্রপাত।
স্বর্ন ঈগলের ডানা হলো রক্ত তরলে ভেজা,নিস্তব্ধ হলো সবুজ প্রান্তর।
দিগন্তে কালো মেঘের আনাগোনা।
নিস্তব্ধ হলো কুলুকুলু নদী
মেঘনা কিংবা কর্নফুলীর ওপার।
আকাশে জমলো ভীষণ অন্ধকারের মেঘ।

ও প্রিয় স্বর্নঈগল আমার
তোমার আহত ডানা ঝাপটানোতে
দিশেহারা হলাম আমি,
আমার ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইলের
সবুজ মৃত্তিকা ভরে গেলো ধূসরে
বিপন্ন বিস্ময়ে।

তোমার দুরন্ত পাখায় ভর করেছিল যে পতাকা, তোমার স্বপ্নের “বাংলাদেশ ”
সেও ঝরে পড়তে চাইলো অনিমেষ।
তোমার বজ্রনিনাদে জেগেছিল,ডেকেছিল যে অস্থির পাখিরা–তারা হলুদ হলো – বিষন্ন হলো চির সবুজ আত্মারা।
যাদের রক্তে এখনো একাত্তুরের ঘ্রাণ।

তোমার ডাকে জেগেছিল একটি দেশ নাম তার ” বাংলাদেশ”
এক নির্মম ভোরে নিস্তব্ধ হলে তোমাকে ডেকেছিল তুমুল।
ডেকেছিল ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইলের প্রতি ইঞ্চি মাটি।
তুমি জাগলে না।
তুমি জাগলে না।
অভিমানে মুখ ঢাকলে
পড়ে রইলে রক্তাক্ত সিঁড়ির শেষ প্রান্তে।

জাগবে না কি?
কেমন আছো স্বর্ন ঈগল?
আসবে না স্বর্গের সিঁড়ি বেয়ে?
তোমার পদ্মা মেঘনা চোখে কি
এখনো সোনার বাংলার স্বপ্ন দোলে?

লিখক : ঝিনুক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *