চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২

admin

বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ বাস্তবায়নে আমাদের ঐক্যবদ্ধ থাকার শপথ নিতে হবে : ডাঃ আফসারুল আমিন এমপি

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১৪ ১৯:১৫:২১ || আপডেট: ২০১৮-০৮-১৪ ১৯:১৫:২১

নিউজ ডেস্ক : চট্টগ্রাম সম্মিলিত কর আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ ও বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ কর আইনজীবী ইউনিটের যৌথ উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৪৩তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে এক স্মরণ আলোচনা সভা গতকাল ১৩ আগষ্ট বেলা ১২টায় সংগঠনের সভাপতি এড. এম.এ.বাশার তালুকদারের সভাপতিত্বে চট্টগ্রাম কর আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেকমন্ত্রী ডাঃ আফসারুল আমিন এমপি। জাতীয় শোক দিবস উদযাপন কমিটি চট্টগ্রামের সদস্য সচিব রফিকুল ইসলাম ও এড. ইফতেখার হোসেন রাসেলের পরিচালনায় এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এড.শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, সাবেক সভাপতি এড. রতন কুমার রায়।

অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কর আইনজীবী সমিতির চট্টগ্রামের সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ ইদ্রিস, সাবেক সভাপতি ও শোক দিবস উদযাপন পরিষদের আহবায়ক আলহাজ্ব মোঃ বদিউজ্জামান, সাবেক সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মোঃ আখতার উদ্দীন, সাবেক সভাপতি জয়শান্ত বিকাশ বড়ুয়া, সাবেক সভাপতি মাহফুজুল হক মনি, সাবেক সাধারণ সম্পাদক শওকতুল আলম, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সম্মিলিত কর আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ নুর হোসেন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক নুরুল কায়সার বেলাল, সম্মিলিত কর আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের প্রেসিডিয়াম সদস্য আসহাব উদ্দীন, মোস্তাফা মোল্লা,তপন দত্ত। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সম্মিলিত কর আইনজীবী সমন্বয় পরিষদনেতা আলহাজ্ব মোঃ আহসান উল্লাহ, আনিসুর রহমান, এড. মোঃ ফয়েজুল্লাহ, মোঃ আলমগীর হোসেন, এড. জাহাঙ্গীর আলম, বাবু রুপন কান্তি দাশগুপ্ত, এ.এইচ.এম মাঈনুল আমিন, মোঃ মামুনুর রশিদ, দিদারুল আকাশ, জসিম আহমেদ চৌধুরী, মোজাফ্ফর হোসেন রাহাত, মীর তাজউদ্দীন তপু প্রমুখ। মিলাদ ও দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন মুক্তিযোদ্ধা মাওলানা মোহাম্মদ শামসুদ্দিন।

সভায় প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন বঙ্গবন্ধুর জন্ম হয়েছে বিধায় আমরা একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র পেয়েছি। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সেদিন স্বপরিবারে হত্যা করে দেশবিরোধী চক্ররা এদেশকে একটি জঙ্গীরাষ্ট্রে পরিণত করতে চেয়েছিল। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের কর্মীরা জীবনের নানা ঘাত প্রতিঘাত অতিক্রম করে রাজপথে জীবন বিসর্জন দিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগকে বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে দেশ পরিচালনার সুযোগ করে দিয়ে আমাদের সকলকে কৃতজ্ঞতায় আবদ্ধ করেছেন। তিনি বলেন মহান মুক্তিযুদ্ধে পরাজিত সৈনিকরা আজও নানা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। এই আগষ্ট মাস বাঙালী জাতির সবচেয়ে ইতিহাসের নিষ্ঠুর ও অমানবিক মাস। এ মাসেই হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী বঙ্গবন্ধুকে যেমন স্বপরিবারে হত্যা করা হয়েছে তেমনি করে ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলাসহ আরো হত্যাকান্ড করেছে ঘাতক বিএনপি, জামাতগোষ্ঠী।

তিনি বলেন মানীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যে অভুতপুর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে সমগ্র বাংলাদেশে সেই উন্নয়ন ধারাবাহিকতা আর সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মান করার জন্য আবারো নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করার জন্য দলের সবস্তরের নেতাকর্মীদের দৃঢ় মনোবল নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। সভার বিশেষ অতিথি চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এড. ইফতেখার সাইমুল বলেন, আওয়ামীলীগের ইতিহাস সবসময় ত্যাগের। জীবিত বঙ্গবন্ধুর চেয়ে মৃত বঙ্গবন্ধু অনেক শক্তিশালী। ৭৫ এর কালো রাত্রিতে সেদিন বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করার পর পরই বাংলাদেশ বেতার সেদিন রাতারাতি রেডিও বাংলাদেশ হয়ে গিয়েছিল। তিনি মধ্যরাতে যারা টকশো করে বুদ্ধিজীবী সুশীল সেজে সরকারের নানা সমালোচনা করে তাদের উদ্দেশ্যে বলেন আজকে যারা সরকারের সমালোচনা করেন তৎকালীন সময়ে বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে যখন হত্যা করা হয়েছে অন্যায়ভাবে, নির্মম ও নিষ্ঠুরভাবে তখন আপনারাতো অনেকেই সরকারি বিভিন্ন পদে ছিলেন। তখনতো আপনারা গণতন্ত্রের কথা বলেননি। তখনতো আপনারা জাতির জনকের হত্যার প্রতিবাদ করেন নি।

তিনি আরো বলেন আওয়ামীলীগ যেমন বর্তমানে ক্ষমতায় থেকে দেশের অনন্য সাধারণ উন্নয়ন করে যাচ্ছে ঠিক তেমনি ক্ষমতার বাইরে থেকেও সকল ষড়যন্ত্র মোকাবোলা করার অভিজ্ঞতা আছে। সুতরাং আওয়ামীলীগের কর্মীদের ভয় দেখার কোন সুযোগ নেই। তিনি আগামী নির্বাচনে আওয়ামীলীগের পরাজয়ের কোন কারণ দেখছেনা। তিনি সকল নেতা কর্মীকে ঐক্যবদ্ধভাবে নিজ নিজ এলাকায় এখন থেকে নৌকার পক্ষে কাজ করার আহবান জানান।

প্রেস বিজ্ঞপ্তী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *