চট্টগ্রাম, , বুধবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২২

admin

বান্দরবানে ভিন্ন ঘটনায় অজ্ঞাত সহ দুই জনের লাশ উদ্ধার

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১৮ ২১:৩৪:২২ || আপডেট: ২০১৮-০৮-১৮ ২১:৩৪:২২

বেলাল আহমদ:

বান্দরবানের লামা উপজেলায় পৃথক ২টি ঘটনায় দুইজন নিহত হয়েছে। নিহত দুইজনের লাশ প্রাথমিক সুরহাতাল রিপোর্ট শেষে ময়নাতদন্তের জন্য বান্দরবান জেলা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন, লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা।

শনিবার (১৮ আগস্ট) সকালে উপজেলার আজিজনগর ইউনিয়নের দূর্গম সাপমারা পাড়ার ফারাংগা ছড়াতে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির মরদেহ পড়ে আছে, লামা থানাকে এমন তথ্য দেয় স্থানীয়রা। সংবাদ পেয়ে লামা থানার অফিসার ইনচার্জ এর নেতৃত্বে পুলিশের উপ-পরিদর্শক কৃষ্ণ কুমার দাস, গিয়াস উদ্দিন সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা হয়।দুর্গম পাহাড়ি পথ পাড়ি দিয়ে দুপুরে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। উপ-পরিদর্শক গিয়াস উদ্দিন বলেন, সেখানে লাশের প্রাথমিক সুরহাতাল রিপোর্ট শেষে মরদেহটি নিয়ে বিকেলে আজিজনগর পুলিশ ফাঁড়িতে পৌঁছায়। পরে মরদেহটি ময়াতদন্তের জন্য বান্দরবান জেলা হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

অপরদিকে শনিবার দুপুরে লামা বাজারে রিক্সা চালক ও গরুর মালিকের ঝগড়ায় একজন নিহত হয় নিহত রবিউল ইসলাম (২৮) নামে এক যুবক। সে লামা সদর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড ডলুঝিরি পাড়ার মৃত মোহাম্মদ নাছিরের ছেলে। সে পেশায় একজন রিক্সা চালক। প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানান, লামা বাজার থেকে গরু নিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন পার্শ্ববর্তী বমুবিলছড়ি ইউনিয়নের পানিস্যার বিল এলাকার বাবলু নামে এক গরুর মালিক। এসময় বাজারের কোর্ট মসজিদ সংলগ্ন রাস্তায় গরুর সাথে রিক্সায় ধাক্কা লাগে। এই নিয়ে ঝগড়ার এক পর্যায়ে গরুর মালিক তাকে আঘাত করলে সে মাটিতে পড়ে অজ্ঞান হয়ে যায়। দ্রুত তুলে লামা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাঃ জিয়াউল হায়দার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় পুলিশ তিনজনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে।

ঘটনা দ্বয়ের সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ অপ্পেলা রাজু নাহা জানান, তদন্ত স্বাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। প্রকৃত আসামীদের গ্রেফতারে কাজ করছে পুলিশ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *