চট্টগ্রাম, , সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২

admin

লোহাগাড়ায় জমে উঠেছে পশুর হাট : দেশি গরুর দিকেই ক্রেতাদের নজর বেশি

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১৯ ১৯:৩৭:৩৭ || আপডেট: ২০১৮-০৮-১৯ ১৯:৩৯:০৫

আলাউদ্দিন, বীর কন্ঠ :

পবিত্র ঈদুল আযহার আর মাত্র কয়েকদিন বাকি।  দক্ষিণ চট্টগ্রামের সেরা পশুর হাট লোহাগাড়া উপজেলার পদুয়া তেওয়ারী হাট। সপ্তাহে রবিবার ও বুধবার বসে এ হাট। প্রতি বছরের এবারও কোরবানি পশুর হাট জমে উঠেছে। তেওয়ারী হাট । ক্রেতারা শুধু পশু দেখছেন, আর দরদাম হাঁকছেন। তবে এবার ছোট দেশি গরুর দিকেই ক্রেতাদের নজর বেশি। অন্যদিকে ভারতীয় গরু তুলনামূলক কম আসায়; দেশি গরুর দাম বেশি। এতে কিছুটা বেকায়দায় পড়েছেন ক্রেতারা।

পদুয়া এসিএম উচ্চ বিদ্যালয় মাঠ, পুকুরের পাড় ও আশপাশের রাস্তায় বসে পশুর হাট। রবিবার  (১৯ আগস্ট) সকাল থেকে উক্ত হাটে বিভিন্ন স্থান থেকে গরু-ছাগল আসতে থাকে। বিকেল নাগাদ উক্ত হাটের পদুয়া হাই স্কুল মাঠ, মাঠের পাশের পুকুরের পাড় ও আশ-পাশের রাস্তা পশুতে ভরে যায়।

বিকেলে উক্ত হাটে গিয়ে দেখা গেছে, দেশী গরু বেশি উঠেছে। বাজারে মাঝারি আকারের গরু বেশি উঠেছে। পাশাপাশি উঠেছে ছাগল। ১২০-১৪০কেজি ওজনের গরুর দাম ৬৫-৭০ হাজার টাকা। উপজেলার এ স্থায়ী পশুর হাট পদুয়া তেওয়ারী হাট সপ্তাহে রবিবার ও বুধবার বসে। দুর-দুরান্ত থেকে গরু-ছাগল কিনতে ক্রেতারা এখানে আসে।

দরবেশহাট এলাকা থেকে আসা বেপারি আনোয়ার বলেন, একটি গরুর লালন-পালনে যে টাকা ব্যয় হয়, বিক্রি করে সে দাম পাওয়া যায় না। তারপরও দাম নিয়ে মানুষের অভিযোগের শেষ নেই।

গরু হাটের ইজারাদার মো. নুরুল ইসলাম সিকদার বলেন , কোরবানির গরু বিক্রি করতে আসা ব্যবসায়ী, পাইকার ও ক্রেতাগণদের নিরাপত্তার জন্য হাটে প্রশাসন অস্থায়ী পুলিশ কন্ট্রোল রুমের ব্যবস্থা এবং পর্যাপ্ত পুলিশ ফোর্স রয়েছে।

লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো: সাইফুল ইসলাম  জানান, কোরবানির পশুর হাটে ছিনতাইসহ সকল প্রকার অন্যায় প্রতিরোধে সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে। ব্যপারীরা যাতে নির্বিঘ্নে হাটে আসতে পারেন, ক্রেতারা যাতে কোন সমস্যা ছাড়া গরু হাট থেকে কিনে নিরাপদে বাড়ি ফিরে যেতে পারেন সে ব্যাপারে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *