চট্টগ্রাম, , রোববার, ২৬ জুন ২০২২

admin

বৃষ্টি ভেজা ঈদ চট্টগ্রামে

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-২২ ১৩:১৬:১১ || আপডেট: ২০১৮-০৮-২২ ১৩:১৬:১১

বীর কণ্ঠ ডেস্ক:

বর্ষা শেষে তালপাকা গরম নিয়েই হাজির হয়েছিল ভাদ্র। কোরবানির পশুর হাটে তাই বেশ ভোগান্তিও পোহাতে হয়েছিল ক্রেতা-বিক্রেতাদের। কিন্তু বৃষ্টি যেন অপেক্ষায় ছিল ঈদের! সকাল থেকেই বন্দরনগরী চট্টগ্রামে বৃষ্টি হচ্ছে। কখনো গুঁড়ি গুঁড়ি, কখনো মুষলধারে। বৃষ্টি মাথায় নিয়েই নগরবাসীকে যেতে হয়েছে ঈদের নামাজে। বৃষ্টিতে ভিজেই চলছে কোরবানির পশু জবাইয়ের কাজ।

এদিকে বৃষ্টির মাঝেও নগরের জমিয়তুল ফালাহ জাতীয় মসজিদ ময়দানে ঈদুল আজহার প্রথম ও প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে সঠিক সময়ে। সকাল পৌনে ৮টায় প্রধান জামাতে ইমামতি করেছেন খতিব সৈয়দ আবু তালেব মোহাম্মদ আলাউদ্দিন আল কাদেরী। ঈদের প্রধান জামাতে চট্টগ্রামের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, ব্যবসায়ী-শিল্পপতিসহ নগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে আসা হাজার হাজার মুসল্লির সমাগম ঘটে। একই ময়দানে সকাল পৌনে ৯টায় ঈদের দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

জমিয়তুল ফালাহ জাতীয় মসজিদ ময়দানে ঈদুল আজহার নামাজ আদায় করেছেন সাবেক মন্ত্রী আবদুল্লাহ আল নোমান, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, চট্টগ্রামের সাবেক মেয়র মীর মো.নাছির উদ্দিন, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদ, নগর বিএনপির সভাপতি ডা.শাহাদাৎ হোসেন ও সিনিয়র সহ সভাপতি আবু সুফিয়ান, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য সোলায়মান আলম শেঠ, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনীসহ চট্টগ্রামের বিশিষ্টজনেরা।

নগরের প্রধান ঈদ জামাত ঠিকভাবে হলেও চট্টগ্রামের বিভিন্ন স্থানে নির্ধারিত খোলায় ময়দানে নামাজ হতে পারেনি বৃষ্টির কারণে। মসজিদগুলোতে ঈদ জামাত সরিয়ে নেয়া হয়। যদিও বৃষ্টির কথা মাথায় রেখে ঈদ জামাতের প্যান্ডেল, প্যান্ডেলে ত্রিপলের ব্যবস্থা রেখেঝিলো সিটি করপোরেশন। বিভিন্ন এলাকায় বৃষ্টির কারণে ঈদগাহর বদলে মসজিদে মসজিদে নামাজ পড়েছেন মুসল্লিরা।

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সকাল ৮টায় এম এ আজিজ স্টেডিয়াম সংলগ্ন জিমনেশিয়াম মাঠে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়া চট্টগ্রাম নগরীর মোট ২৫৯টি স্থানে ঈদুল আজহার জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মধ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) ব্যবস্থাপনায় ১৬৫টি এবং কেন্দ্রীয় ঈদ জামাত কমিটির ব্যবস্থাপনায় ৯৪টি জামাত অনুষ্ঠিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

আবহাওয়া অধিফতর থেকেও জাননো হয়েছে- আজ (বুধবার) ঈদের সারাদিনে থেমে থেমে বৃষ্টি ঝড়বে চট্টগ্রামে।
পতেঙ্গা আবহাওয়া অফিসের সহকারী আবহাওয়াবিদ হিমাদ্রী জানান, সকাল থেকে এই প্রশ্নেরই উত্তর দেয়াতে ব্যস্ত আছেন তারা।

তিনি বলেন, ‘সাগরের লঘুচাপটি ইতোমধ্যে স্থলভাগে ওঠে এসেছে। তাই সারাদেশেই থাকবে বৃষ্টিপাত। এক্ষেত্রে কোথাও ভারী, কোথাও হালকা ধরণের বর্ষণ হবে।’
হিমাদ্রী আরও জানান, মৌসুমী অক্ষের বর্ধিতাংশ রাজস্থান, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ, লঘুচাপের কেন্দ্রস্থল ও বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চল হয়ে উত্তর-পূর্ব দিকে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরের অন্যত্র মাঝারি থেকে প্রবল অবস্থায় আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *