চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২

বেলাল আহমদ বিশেষ প্রতিনিধি

লামায় গভীর রাতে পাহাড় কেটে মাটি সংগ্রহ ও ইটভাটার বিরুদ্ধে প্রশাসনের যৌথ অভিযান

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-৩১ ১১:৪৩:৩৯ || আপডেট: ২০১৮-০৮-৩১ ১১:৪৩:৩৯

 বান্দরবানের লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের গহীন অরণ্যে পাহাড়খেকোদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়েছে প্রশাসন। অভিযানের নেতৃত্ব প্রদান করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নূর-এ-জান্নাত রুমি। উপজেলা প্রশাসন, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, পরিবেশ অধিদপ্তর ও লামা থানার চৌকশ টিম অভিযানে অংশ নেয়। 

বৃহস্পতিবার রাত্রে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের দূর্গম পাগলীর ছড়া নামক স্থানে অবৈধভাবে পাহাড় কেটে মাটি সংগ্রহ ও ইটভাটা স্থাপনের বিরুদ্ধে এই যৌথ অভিযান চালানো হয়। এসময় মাটি কাটার জন্য ব্যবহৃত বিভিন্ন আকারের স্ক্যাভেটর/বুলডোজার জব্দ করা হয়। জব্দকৃত স্ক্যাভেটর ও বুলডোজার গুলো অকেজো করা হয়েছে। এছাড়া ১০ ড্রাম জ্বালানী তেল আগুন জ্বালিয়ে নষ্ট করা হয়।

পরিবেশ অধিদপ্তরের কক্সবাজার অঞ্চলের পরিদর্শক জাহানারা ইয়াছমিন বলেন, লামা উপজেলার প্রশাসনের একটি চমৎকার উদ্যোগ। প্রশাসন এইরকম আরো অভিযানের উদ্যোগ নিলে আমরা সাথে থেকে সার্বিক সহায়তা করব।

লামা-আলীকদম সেনা জোনের দায়িত্বরত কর্মকর্তা বলেন, আইনশৃঙ্খলা, নিরাপত্তা ও অবৈধ যে কোন কাজে স্থানীয় প্রশাসন আমাদের সহায়তা চাইলে আমরা পাশে থাকব।

অভিযানের নেতৃত্ব দেয়া লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নূর-এ জান্নাত রুমি বলেন, বান্দরবান জেলা প্রশাসকের নির্দেশে সেনাবাহিনী, পরিবেশ অধিদপ্তর ও লামা থানার সহযোগিতা নিয়ে আমরা পাহাড়খেকোদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়েছি। পরিবেশের ক্ষতিকর যে কোন বিষয়ে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *