চট্টগ্রাম, , রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯

এম মাঈন উদ্দিন মিরসরাই প্রতিনিধি

মিরসরাইয়ে জমে উঠেছে স্বাধীনতা মেলা

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-২১ ১৭:৫৫:৫২ || আপডেট: ২০১৯-০৩-২১ ১৭:৫৫:৫২

এম মাঈন উদ্দিন, মিরসরাই ; মিরসরাইয়ে জমে উঠেছে স্বাধীনতা মেলা। উপজেলার আবুতোরাব উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে স্বাধীনতা মেলা উদ্যাপন পরিষদ আয়োজিত মেলা চলবে আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত। মেলায় স্বাধীনতা মঞ্চে প্রতিদিন উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, দেশ বরেণ্য ব্যক্তিদের অংশগ্রহণে মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীণ বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস আলোচনা এবং অতিথি শিল্পীদের অংশগ্রহণে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। যার মাধ্যমে তরুণ প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস সম্পর্কে জানতেছে। মেলার ৬ষ্ঠ দিন বুধবার আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার( উন্নয়ন) মো. নুরুল আলম নিজামী।

স্বাধীনতা মেলা কমিটির কো-চেয়ারম্যান ও মিরসরাই উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মিহির কান্তি নাথের সভাপতিত্বে ও মঘাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসাইন মাষ্টারের সঞ্চালনায় এসময় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, মিরসরাই উপজেলার নব-নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি এম আলাউদ্দিন, মেলা কমিটির সদস্য সচিব ও মায়ানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির আহম্মদ নিজামী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-দপ্তর সম্পাদক তোফায়েল উল্লাহ চৌধুরী নাজমুল প্রমুখ। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, উপ-সহকারী প্রকৌশলী (প্রকল্প বাস্তবায়ন) মিলন বড়ুয়া, মিরসরাই থানার এসআই নিজাম উদ্দিন আজাদ, মিরসরাই থানার সাব-ইন্সপেক্টর আল-ইমরান পাটোয়ারী প্রমুখ। মেলার প্রথম পর্বে অনুষ্ঠিত হয় উপজেলার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মাজেদা হক উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিবেশনায় মনোজ্ঞ সাংকৃতিক অনুষ্টান। ২য় পর্বে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা। এবং তৃতীয় ও শেষ পর্বে অনুষ্ঠিত হয় দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে আগত অতিথি শিল্পিদের পরিবেশন হয় গান। মেলা প্রাঙ্গণে গিয়ে দেখা যায়, আবুতোরাব উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে তিল ধারণের ঠায় নেয়। বিভিন্ন বয়সের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের যেন মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে মিরসরাইয়ের স্বাধীনতা মেলা। ১৭ দিনব্যাপী মেলার কার্যক্রম প্রতিদিন সকাল থেকে শুরু হলেও মেলায় দর্শনার্থীদের ভীড় বাড়ে বিকেল বেলা থেকে। রাত ১২টা পর্যন্ত মেলায় থাকে দর্শনার্থীদের আনাগোনা। মেলায় স্বাধীনতা মঞ্চে প্রতিদিন উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা দেশাত্মবোধক গান, নৃত্য, কবিতা আবৃত্তি পরিবেশনা করে। এরপরে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বিভিন্ন স্মৃতিচারণ আলোচনা করা হয়। যেখানে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস নতুন প্রজন্মের সামনে উপস্থাপন করা হয়। এর ফলে মেলায় আগত নতুন প্রজন্ম স্বাধীনতার ইতিহাস জানতে পারছে। আলোচনা সভা শেষে মেলায় আগত দর্শনার্থীদের বিনোদনের জন্য জনপ্রিয় শিল্পীদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এছাড়া মেলায় আগত দর্শনার্থীদের কেনাকাটার জন্য রয়েছে কসমেটিকস দোকান, কাপড় দোকান, জুতার দোকান, ফুচকার দোকান সহ খেলাধুলা জন্য নাগরদোলা, মৃত্যুকূপ মোটর সাইকেল খেলা। যেখানে দর্শনার্থীরা পাচ্ছে ব্যাপক বিনোদন।

মেলায় কেউ নিজের পছন্দের কেনাকাটা করছে কেউবা ভাগ্য যাচাইয়ের জন্য নিচ্ছে লাকী কূপন। লাকী কূপন প্রতিদিন রাত ১২টায় ড্র হয়। যেখানে মোটরসাইকেল, স্বর্ণের চেইন, কানের দুল সহ দেওয়া হয় শতাধিক পুরস্কার। মেলায় স্বপরিবারে ঘুরতে আসা ব্যবসায়ী নিজাম উদ্দিন জানান, বাচ্চাদের ঘুরতে যাওয়ার বায়না সারতে মেলায় এসেছি। মেলায় বসানো বিভিন্ন খেলনায় চড়ে তারা খুবই আনন্দিত। এছাড়া মেলায় বিভিন্ন স্টলে কেনাকাটার জন্য রাখা পুতুল, কসমেটিকস দোকান থেকে কেনাকাটা করেছি। স্বাধীনতা মেলা উদ্যাপন পরিষদের সদস্য সচিব ও মায়ানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কবির আহমদ নিজামী বলেন, গত ১৫ মার্চ গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন মেলার উদ্বোধন করেন। মেলায় প্রতিদিন স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস পর্যালোচনার পাশাপাশি নতুন প্রজন্মকে দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ করার জন্য বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হচ্ছে।

মেলায় আগত দর্শনার্থীরা স্বাধীনতা যুদ্ধের ইতিহাস জানার পাশাপাশি বিভিন্ন কেনাকাটা করছে। এছাড়া নাগরদোলা, মৃতুকূপে মোটর সাইকেল খেলা দেখা ছাড়াও বিভিন্ন রাইডে চড়ে বিনোদন পাচ্ছে দর্শনার্থীরা। স্বাধীনতা মেলা উদ্যাপন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ আতাউর রহমান জানান, মেলা বলতে সাধারণত বিনোদন কিংবা পছন্দ মোতাবেক কেনাকাটা বা ঘোরাফেরা বোঝালেও মিরসরাই স্বাধীনতা মেলা এখানে ব্যতিক্রম। স্বাধীনতা মেলায় তরুণ প্রজন্ম স্বাধীনতা সংগ্রামের সঠিক ইতিহাস জানতেছে। বাঙ্গালীর স্বাধীনতা সংগ্রাম, বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার ক্ষেত্রে জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসামান্য অবদান পর্যালোচনা সহ মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস মিরসরাই স্বাধীনতা মেলার মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের সামনে উপস্থাপন করা হচ্ছে। মেলায় দর্শনার্থীদের নিরাপত্তার সার্থে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েনের পাশাপাশি স্বেচ্ছাসেবক নিয়োজিত আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *