চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯

শংকর চৌধুরী খাগড়াছড়ি জেলা প্রতিনিধি

হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত কেউ রেহাই পাবে না : বাঘাইছড়ি হত্যাকান্ড স্থলে জিওসি ও বিভাগীয় কমিশনার

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-২৮ ০০:১১:১৩ || আপডেট: ২০১৯-০৩-২৮ ০০:১১:১৩

শংকর চৌধুরী,খাগড়াছড়ি : রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়িতে উপজাতি সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহতের ঘটনাকে কাপুরুষিত উল্লেখ করে সেনাবাহিনীর ২৪ পদাতিক ডিবিশনের এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল এস এম মতিউর রহমান বলেছেন,এমন নির্মম ও ঘৃণ্য হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত কেউ নিরাপত্তাবাহিনীর হাত থেকে রেহাই পাবে না। প্রকৃত সন্ত্রাসীদের দ্রুত সময়ের মধ্যে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে।

বুধবার ২৭ মার্চ বেলা ১২টার সময় রাঙামাটির বাঘাইছড়ির নয় মাইল এলাকায় সাত খুনের ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে তিনি এসব কথা বলেন। ঘটনার দিন রাত থেকেই হত্যাকারি সন্ত্রাসীদের আটকে যৌথবাহিনীর চলমান অভিযান আগামী ২৯ মার্চ পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে এবং সাত খুনের ঘটনায় জড়িত সন্ত্রাসীদের ধরতে চলমান অভিযানে কোন সাধারণ মানুষকে হয়রানি করা হবে না বলেও জানান তিনি।

এসময়,চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল মান্নান বলেন,‘সরকারি কর্মকর্তা এবং নির্বাচনের সাথে সংশ্লিষ্টদের এভাবে হত্যা কখনো সরকার বরদাস্ত করবে না। তিনি সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে বর্তমান সরকারের জিরো টলারেন্স নীতির কথা জানান। ঘটনাস্থল পরিদর্শনে ২০৩ পদাতিক ব্রিগেড ও খাগড়াছড়ি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হামিদুল হক, চট্টগ্রামের ডিআইজি গোলাম ফারুক, খাগড়াছড়ি সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল গাজী সাজ্জাত মাহমুদ, রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ, পুলিশ সুপার আলমগীর কবির, খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার আহমার উজ্জামানসহ বাঘাইছড়ি উপজেলার জনপ্রতিনিধি, সরকারী কর্মকর্তা ও সামরিক পদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পরে বাঘাইছড়ি উপজেলা ২৭ বিজিবি প্রশিক্ষণ মাঠে স্থানীয়দের সাথে মতবিনিময় শেষে নিহত ও আহতদের স্বজনদের মাঝে আর্থিক অনুদান বিতরণ করা হয়। প্রসঙ্গত, ১৮ই মার্চ উপজেলা নির্বাচন শেষে নির্বাচনী সরঞ্জাম নিয়ে বাঘাইছড়িতে ফেরার পথে ৯ মাইল এলাকায় সন্ত্রাসীদের গুলিতে প্রিজাইডিং অফিসারসহ সাত জন মারা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *