চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

শংকর চৌধুরী খাগড়াছড়ি জেলা প্রতিনিধি

পাখি ও প্রকৃতি রক্ষায় সকলকে এগিয়ে আসতে হবে : ব্রিগেডিয়ার হামিদুল হক

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-৩১ ০০:৪৩:১৩ || আপডেট: ২০১৯-০৩-৩১ ০০:৪৩:১৩

 শংকর চৌধুরী,খাগড়াছড়ি : পাহাড়ে পাখি রক্ষায় অনন্য উদ্যোগ ‘সেভ দ্য বার্ডস অব হিল’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী ছবি প্রদর্শনী। চখাচখি, হলুদ পায়ের হরিয়াল, শামুকখোল, ধুমকল, হিল ময়না, ধবল পেট মুনিয়া, নীল গলা বসন্ত, খয়রা লাটোরা, কালামাথা কাবাসি, কালা তিতির, বেগুনি কোমর মৌটুসি, লালপিঠ ফুলঝুরি, পাহাড়ি নীলকান্ত, উদয়ী ধলাচোখ, নীলকণ্ঠ, ময়নাসহ প্রায় ৪১ প্রজাতির পাখি। বাহারী সব নামের এসব পাখি দেখতে ভীড় জমিয়েছে পাখি ও প্রকৃতি প্রেমীরা। পাহাড়ের পাখি রক্ষায় খাগড়াছড়ি জেলা শহরে প্রথমবারের মতো ‘সেভ দ্য বার্ডস অব হিল’ শীর্ষক দুই দিনব্যাপী ছবি প্রদর্শনী সমাপ্ত হয়েছে।

শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে দুই দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন, খাগড়াছড়ির রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো: হামিদুল হক ও খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী। এসময়,খাগড়াছড়ির অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: চাহেল তস্তরী, পুলিশ সুপার মোহা: আহমার উজ্জামান, ভু-পর্যটক তানভীর অপু, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য নির্মলেন্দু চৌধুরী, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চাকমা, খাগড়াছড়ি জেষ্ঠ্য সাংবাদিক তরুণ কুমার ভট্টাচার্য্য প্রেস ক্লাবের সভাপতি জীতেন বড়ুয়া ও দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারন সম্পাদক এ্যাড. জসিম উদ্দিন মজুমদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। দুই দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীতে খাগড়াছড়ি ও রাঙ্গামাটির বিভিন্ন জনপদ থেকে দুই তরুন আলোকচিত্রী প্রকৌশলী সবুজ চাকমা ও সাংবাদিক সমির মল্লিকের তোলা প্রায় ৪১ প্রজাতির পাখির সাথে পরিচয়ের সুযোগ ঘটে পাখি ও প্রকৃতি প্রেমীদের। ছবি প্রদর্শনী ঘুরে দেখে দুই তরুণ আলোকচিত্রীর এমন অনন্য উদ্যোগের প্রশংসা করে খাগড়াছড়ির রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো: হামিদুল হক বলেন,‘তাদের এ উদ্যোগ পাহাড়ের বিরল প্রজাতির পাখি রক্ষায় জনসচেতনতা বাড়াবে’।

পাখি রক্ষার পাশাপাশি প্রকৃতি রক্ষায় সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী। পাহাড়ে পাখি রক্ষায় সবাইকে এগিয়ে আসার অনুরোধ জানিয়ে ঢাকা থেকে আসা পাখি গবেষক তানভীর অপু বলেন, পাখি শিকার ও মাংস খাওয়া বন্ধ করতে হবে। পাখি পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে। খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ হর্টিকালচার পার্কের খোলা চত্ত্বরে ২৯ মার্চ শুরু হয়ে চলে ৩০ মার্চ সন্ধা পর্যন্ত। প্রদর্শনী ছিল সকলের জন্য উন্মুক্ত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *