চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ৬ ডিসেম্বর ২০১৯

জাহেদুল হক আনোয়ারা প্রতিনিধি

বৃষ্টি উপেক্ষা করে ঈদের ছুটিতে পারকি সৈকতে পর্যটকের ঢল

প্রকাশ: ২০১৯-০৮-১৪ ২৩:৪৭:৫৪ || আপডেট: ২০১৯-০৮-১৪ ২৩:৪৭:৫৪

জাহেদুল হক, আনোয়ারা :
কখনও মেঘ আবার কখনও গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি। সমুদ্রের ঢেউয়ের তালে নেচে গেয়ে আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠা। সৈকতের বালিয়াড়িতে ক্লান্তিহীন ছোটাছুটি। অনেকে সেলফি তুলে ছড়িয়ে দিচ্ছে সামাজিক মাধ্যমে। আবার কেউ কেউ সারিসারি ঝাউ বীথির ছায়ায় বসে গান আর গল্প আড্ডায় মশগুল।
এমন দৃশ্য এখন মিনি কক্সবাজার খ্যাত আনোয়ারা উপজেলার পারকি সমুদ্র সৈকতে। প্রকৃতির নৈসর্গিক ছোঁয়া পেতে ঈদুলআযহার ছুটিতে হাজারো পর্যটকের ঢল নেমেছে। এতে করে পর্যটন মুখী ব্যবসায়ীদের মুখে ফুটে উঠেছে হাসি। তবে সৈকত এলাকায় অবকাশ যাপনের কোনো ব্যবস্থা না থাকায় সন্ধ্যার আগেই গন্তব্যে ফিরে যেতে হচ্ছে পর্যটকদের।
এছাড়া সৈকতে রাতে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থানা থাকাসহ খাবার দোকান গুলোর অতিরিক্ত দাম নিয়ে ও মিশ্র প্রতিক্রিয়া রয়েছে পর্যটকদের। এদিকে আগত পর্যটকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে পুলিশের টহল জোরদার করা হয়েছে।
চট্টগ্রাম জেলা সৈকত ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য ও বারশত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এম এ কাইয়ুম শাহ্ জানান, শুধু পর্যটন মৌসুম নয়, এখন সারা  বছরই পর্যটকদের পদচারণায় মুখর থাকছে পারকি সৈকত। বিভিন্ন উৎসব এবং ছুটির দিনগুলোতে পর্যটকদের এ উপস্থিতি আরো বেড়ে যায়। এরই ধারাবাহিকতায় বৈরি আবহাওয়া থাকার পরও ঈদের দিন থেকেই সৈকতে হাজারো পর্যটকের সমাগম ঘটতে থাকে।
চন্দনাইশ থেকে বেড়াতে আসা স্কুলছাত্রী কোহিনুর আক্তার বলেন, এখানকার অপরূপ দৃশ্য অসাধারণ লেগেছে। লেখাপড়ার কারণে সাধারণত কোথাও বেড়াতে পারিনা। ঈদের ছুটিতে আব্বু আম্মুর সাথে এখানে এসেছি।
ঈদের দ্বিতীয় দিন স্ব-পরিবার নিয়ে পারকি সৈকতে ঘুরতে এসেছেন হাটহাজারীর বুড়িশ্চর এলাকার বাসিন্দা নুরুল মোস্তফা। তিনি জানান, এখানে ভালো মানের তেমন খাবার হোটেল নেই। যে কয়েকটি আছে সেগুলোর দাম অনেক চড়া। অবকাশ যাপনের জন্য নেই হোটেল-মোটেল ব্যবস্থা। এছাড়া রাতে সৈকতে আলোর ব্যবস্থাও নেই। এসব বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের গুরুত্ব দেওয়া উচিত।
পারকি সৈকতের ভ্রাম্যমান দোকানি মোহাম্মদ ইলিয়াছ জানান, প্রকৃতির বৈরিতা দমিয়ে  রাখতে পারিনি পর্যটকদের। গতকালও (মঙ্গলবার) বৃষ্টি উপেক্ষা করে হাজার প্রাণের মিলনমেলায় ভরে উঠে ছিল সবুজ নৈসর্গিক সৌন্দর্যের পর্যটন কেন্দ্র পারকি সৈকত। বৃষ্টিতে ভিজেই পর্যটকরা ছুটে বেড়িয়েছেন সৈকতের এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে।
কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর মাহমুদ বলেন, সৈকতে আগত পর্যটকদের নিরাপত্তায় পুলিশ টহল জোরদার করা হয়েছে। পাশাপাশি নারী পুলিশও মোতায়েন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *