চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

admin

চন্দনাইশে ১০দিন ব্যাপি শোহাদায়ে কারবালার মাহফিল সম্পন্ন

প্রকাশ: ২০১৯-০৯-১০ ০০:৪০:৫২ || আপডেট: ২০১৯-০৯-১০ ০০:৪০:৫৯

মো. নুরুল আলম,চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি :

চট্টগ্রামে চন্দনাইশ উপজেলায় জাহাঁগিরিয়া শাহসুফি মমতাজীয়া দরবার শরীফের উদ্যোগে আনজুমান এ জাহাঁগিরিয়া শাহসুফি মমতাজিয়া ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনায় দাওয়াতে সুফির ১০দিন ব্যাপি পবিত্র শোহাদায়ে কারবালা মাহফিল ৯সেপ্টেম্বর (সোমবার) সমাপনী দিবসে মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন জাহাঁগিরিয়া শাহসুফি মমতাজিয়া দরবারের পীরে কামেল হযরতুলহাজ্ব আলামা শাহসুফি সৈয়্যদ মোহাম্মদ আলী মাঃজিঃআঃ। প্রধান অতিথি ছিলেন সৈয়্যাদ সেহাব উদ্দীন আলম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সহ সুপার শাহজাদা মাওলানা মোহাম্মদ মনজুর আলী, নির্বাহী পরিচালক শাহজাদা মাওলানা মতি মিয়া মনসুর, শাহজাদা মাওলানা আহছান আলী, অধ্যক্ষ স উ ম আবদুস সামাদ, চন্দনাইশ উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আবদুর রহিম বাদশা, কাঞ্চনাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মুজিবুর রহমান,সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নুরুল আবছার ও সাবেক চেয়ারম্যন আলহাজ্ব আবদুল শুক্কুুর,ইতিহাসবিদ সোহেল মুহাম্মদ ফখরুদ্দীন, সাংবাদিক মো. নুরুল আলম।

বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন তকরির করেন হযরতুলহাজ্ব আল্লামা মুফতী মীর মুহাম্মদ আলাউদ্দীন আল কাদেরী,আল্লামা রেজাউল করিম মমতাজী আল্লামা হাফেজ মুহাম্মদ গোলাম কিবরিয়া অাল কাদেরী, আল্লামা মুহাম্মদ বুরহান উদ্দীন আল কাদেরী, আল্লামা মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান নুরে বাংলা,আল্লামা অধ্যক্ষ কাজী হাফেজ আহমদ আল কাদেরী, আল্লামা মুফতী ইকবাল হোসেন মমতাজী ,আল্লামা সিদ্দিক আহমদ নঈমি,আল্লামা আহমদ হোসেন জিহাদি, মাওলানা হাফেজ আবদুর রহমান মমতাজী পটুয়াখালী, মাওলানা অলি আহমদ,মাওলানা রাজিব চৌধুরী।

এ সময় অন্যান্য মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মাষ্টার আবুল হোসেন, মাওলানা আবদুল মন্নান, মাওলানা আহমদ হোসেন,মাওলানা মেহেদী হোসেন রনি,মাওলানা রেজাউল করিম,মাওলানা রাকিব হোসেন বেলাল,মোহাম্মদ আবু তৈয়্যব, মোহাম্মদ আমিনুল ইসলাম,মোহাম্মদ রাজা মিয়া,মোহাম্মদ রিদুয়ান প্রমূখ।

শোহাদায়ে কারবালার মাহফিলে বিজ্ঞ বক্তারা বলেছেন, কারবালার প্রান্তরের ইমাম হোসাইন (র.) সহ তাঁর পরিবারের সদস্যবৃন্দদের শহীদানের ইতিহাস বিশ্ব ইতিহাসে আলোচিত। বেঈমান, মোনাফেক ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে ষড়যন্ত্রের শিকার হয়ে হযরত ইমাম হোসাইন (র.) সহ অনেকেই কারবালার প্রান্তরে ইসলামের জন্য, সত্য পথের জন্য নবী মুহাম্মদ (দ.) এর জীবন আদর্শকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য প্রাণ বিসর্জন দেন। এই ইতিহাসের মধ্যে দিয়ে ইসলামের জীবনার্দশ মানুষের কাছে আরও আদর্শ উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হিসেবে দাড়িয়ে রয়েছে। শত্রুরা মনে করেছিলেন ইমাম হোসাইন কে শহীদের মধ্যদিয়ে তাদের নেতৃত্বের বিজয় হবে, কিন্তু না তা হয়নি। বরং ইয়াজিদ ধ্বংস হয়েছে, আর ইমাম হোসাইনের আদর্শ চির উজ্জ্বল হয়ে আজও মানুষের কাছে পবিত্র ও ইসলামের পতাকা বহন করে নিয়ে চলেছে। মহান আল্লাহ্ আমাদের সকলকে কারবালার ময়দানের প্রকৃত ইতিহাস জানার মধ্যে দিয়ে পবিত্র কোরআন ও হাদিসের আলোকে জীবন-যাপনের সুযোগ দান করুক। সভা শেষে কারবালার প্রান্তরে সকল শহীদদের স্মরণে ও কাশ্মীরসহ বিশ্বের মুসলিম জাহানের শান্তি কামনা করে বিশেষ মুনাজাত করেন জাহাঁগিরিয়া শাহসুফি মমতাজিয়া দরবারের পীরে কামেল হযরতুলহাজ্ব আলামা শাহসুফি সৈয়্যদ মোহাম্মদ আলী (মাঃজিঃআঃ)।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *