চট্টগ্রাম, , শনিবার, ৪ এপ্রিল ২০২০

admin

অগ্নিকান্ডে ঘর পুড়ে যাওয়া আওয়ামীলীগ নেতার খবর নেয়নি কেউ

প্রকাশ: ২০১৯-১২-৩১ ২২:৫৪:২৯ || আপডেট: ২০১৯-১২-৩১ ২২:৫৫:৪৩



আব্দুল্লাহ আল সাকিব, চকরিয়া :
কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার কাকারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিনের অগ্নিকান্ডে বাড়ি পুড়ে যাওয়ার ১০দিন অতিবাহিত হলেও সরকারি-বেসরকারিভাবে সহযোগিতা পায়নি।

এমন কী কোন আয়োমীলীগ নেতারাও সহানুভুতি জানাতেও এগিয়ে আসেননি। এতে প্রচন্ড শীতে খোলা আকাশের নীচে দূর্বিসহ দিনযাপন করছেন তার অসহায় পরিবার। আজকের অসহায় অবস্থায় থাকা আওয়ামীলীগ নেতা নাজিম উদ্দিন কিছুদিন আগেও তার এলাকার শতশত অসহায় পরিবার গুলোর পাশে দাড়াতে দেখা গেছে ।

জানা গেছে, গত ২২ ডিসেম্বর ভোররাত দেড়টার দিকে কাকারা ইউনিয়নের প্রপার কাকারা এলাকার ৬নম্বর ওয়ার্ডে বিদ্যুতের শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়ে আওয়ামীলীগ নেতা নাজিম উদ্দিনের বসতবাড়ি ভস্মিভুত হয়।

এসময় ঘরে তিনি ছাড়া আর কেউ না থাকায় কোন ধরণের মালামাল উদ্ধার করতে পারেননি। আগুণে পুড়ে যায় ঘরে গচ্ছিত নগদ টাকা, স্বর্ণাল্কংার ও প্রয়োজনীয় দলিলপত্র। কিন্তু আগুণে পুড়ে যাওয়ার ১০দিন অতিবাহিত হলেও প্রশাসন ও জনপ্রতিনিধির কাছ থেকে কোন ধরণের সহযোগিতা মেলেনি তার পরিবারে।

এদিকে আগুণে পুড়ে নিঃস্ব হয়ে যাওয়া আওয়ামীলীগ নেতার চোখে শুধু অন্ধকার। জীবনের সঞ্চিত অর্থ দিয়ে গড়া বাড়ি, স¦র্ণালংকার ও প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র সব হারিয়ে তিনি এখন নির্বাক। কিন্তু আওয়ামীলীগের একজন দায়িত্বশীল কর্মী হয়েও দুঃসময়ে কেউ এগিয়ে না আসায় ক্ষোভ ও প্রকাশ করছেন কাকারা এলাকার আওয়ামীলীগের নেতাকর্মিরা।

তারা বলেন আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষমতায় থাকলেও একজন সক্রিয় ও নীতিবান নেতার এ দূরাবস্থা মেনে নিতে পারছেনা তৃণমূলের কর্মীরা।

ক্ষতিগ্রস্থ আওয়ামীলীগ নেতা নাজিম উদ্দিন বলেন, ঘর পুড়ে যাওয়ার পর থেকে খোলা আকাশের নিচে পরিবার নিয়ে অসহায় থাবে অবস্থান করছি। নিজের কোন আর্থিক সামর্থ না থাকায় মাথা গোঁজার ঠাই নেই এখন। আমার সহায় সম্বল যা ছিল তা আগুনে পুড়ে গেছে।

এতে আমার অন্তত ৬০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। স্ত্রী ও তিন সন্তান নিয়ে বিপাকে পড়েছি। এ অবস্থায় স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তা পেলে আমার পরিবার পাবে মাথা গোঁজার ঠাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *