চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২ এপ্রিল ২০২০

খলিল চৌধুরী সৌদি আরব প্রতিনিধি

প্রবাসী শ্রমীকদের নানারকম ফি বিষয়ে পুনর্বিবেচনা করছে সৌদি সরকারের শুরা কাউন্সিল

প্রকাশ: ২০১৯-১২-৩১ ১৯:৩৩:৫৭ || আপডেট: ২০১৯-১২-৩১ ১৯:৩৪:০৫

খলিল চৌধুরী, সৌদি আরব প্রতিনিধি :

প্রবাসী শ্রমীকদের নানারকম নেতিবাচক ফি বিষয় নিয়ে পুনর্বিবেচনা করছে সৌদি আরব সরকারের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম শুরা কাউন্সিল।

তারা শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি বাড়ানো দরকার বলেও মনে করছেন। কারণ এতে করে অনেক স্থানীয় সৌদিকেও এসব কাজের ব্যাপারে আগ্রহী করে তোলা যাবে। এতে করে সৌদি আরবের স্থানীয় বেকার সমস্যার সমাধান কিছুটা হলেও লাঘব হবে।

প্রবাসী শ্রমীকদের শ্রম ও সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিবেদনের সাপেক্ষে শুরা সভার সদস্য আসাফ আবু থোনাইন বিদেশী শ্রমীকদের উপর নানা রকম অতিরিক্ত ফি সহ সামাজিক ও অর্থনৈতিক নানারকম ফি পুনরায় বিবেচনা করার প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরেন।

আরেক সদস্য ডাক্তার সামিয়া বুখারী বলেন বেসরকারি খাতে আরও বেশি সৌদি চাকুরেকে আকৃষ্ট করতে বেসরকারি খাতের সুযোগ সুযোগ সুবিধা বাড়ানো উচিৎ।

ওসামা আল রাবিয়াহ বলেন নিতাকাত সৌদিকরন প্রোগ্রামের মত অনেক খাতই সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে ।

ডাক্তার ফাহাদ বিন জুমা কর্মক্ষেত্রে সৌদিকরনের একটা ভাল দিক তুলে ধরেন, তাঁর মতে সৌদি কর্মী বাড়ালে আগামী ১০ বছরে গুরুত্বপূর্ণ খাতে সৌদি কর্মীদের সংখ্যা শতকরা ৮০ ভাগে উন্নীত হবে।

এই প্রস্তাবকে সমর্থন জানিয়ে ডাক্তার মুহাম্মদ আল আব্বাস বলেন যে শ্রমবাজারে মজুরির যে বৈষম্য আছে তা কমিয়ে আনতে হবে ।

তবে ডাক্তার মোনা আল মুশাইত কিছু ক্ষেত্রে সৌদিদের কাজ করার নিষেধাজ্ঞা আরোপণের শ্রম মন্ত্রণালয়ের প্রশংসা করে ব্যাপারে বলেন যে এটা ভাল উদ্যোগ। এতে করে কম বয়সী ছেলে মেয়েরা শ্রমবাজারে বিভিন্ন রকম কাজের সুযোগ পাবে।

প্রিন্স ডাক্তার খালেদ আল সাউদ বলেন যে সৌদি যুবসমাজকে উদ্যোক্তা হতে আরও উৎসাহিত করা উচিৎ । এতে করে চাকরি প্রত্যাশী অনেক ছেলে মেয়েই কর্মসংস্থান হবে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *