চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ৯ এপ্রিল ২০২০

admin

মিয়ানমার থেকে ৯ দিনে ১৭০০ টন পেঁয়াজ আমদানি

প্রকাশ: ২০২০-০১-০৯ ১৮:৫১:৫৫ || আপডেট: ২০২০-০১-০৯ ১৮:৫২:০২

আব্দুল্লাহ মনির, টেকনাফ :

কক্সবাজারের টেকনাফ স্থলবন্দরে মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানি কিছুটা কমেছে। গত ৯ দিনে এ বন্দর দিয়ে ১৭০০ টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। বৃহস্পতিবার খালাস হয়েছে ৩৯৭ মেট্রিক টন পেঁয়াজ। তবে পেঁয়াজ আমদানি কমলেও টেকনাফের স্থানীয় বাজারে পেঁয়াজের দাম আগের তুলনায় কমেছে।

টেকনাফ পৌরবাজারের পেঁয়াজ ব্যবসায়ীরা জানান, বৃহস্পতিবার তারা ১২০ টাকা কেজিতে পেঁয়াজ বিক্রি করেছেন। মিয়ানমার থেকে আমদানি বেশি না হলেও তেমন সংকট নেই বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

টেকনাফ স্থলবন্দর শুল্ক বিভাগ সূত্রে জানা যায়, মিয়ানমার থেকে টেকনাফ স্থলবন্দরে গত ডিসেম্বর মাসে ১৪ হাজার ৬৪৭ টন, নভেম্বর মাসে ২১ হাজার ৫৬০ টন এবং অক্টোবর মাসে ২০ হাজার ৮৪৩ টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। অর্থ্যাৎ গত বছরের শেষ তিনমাসে মিয়ানমার থেকে ৫৭ হাজার ৫০ টন পেয়াজ আমদানি হয়েছে।

টেকনাফ স্থল বন্দর শুল্ক কর্মকর্তা আবছার উদ্দীন জানান, মিয়ানমার থেকে নতুন বছরের শুরু থেকে পেঁয়াজ আমদানি স্বাভাবিক রয়েছে। দেশে পেঁয়াজের সংকট মোকাবেলায় আমদানি আরো বাড়াতে ব্যবসায়ীদের উৎসাহিত করা হচ্ছে।

টেকনাফ স্থল বন্দর কর্তৃপক্ষ ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট এর ব্যবস্থাপক মো. জসিম উদ্দীন চৌধুরী বলেন, মিয়ানমার থেকে আমদানিকৃত পেঁয়াজ দ্রুত খালাসে আমরা রাতদিন কাজ করে যাচ্ছি। দ্রুত সময়ে পেঁয়াজ খালাসে পর্যাপ্ত শ্রমিকও রয়েছে। আমদানিকারকরা এ বন্দরে কোন বাঁধা প্রতিবন্ধকতা ছাড়াই তাদের আমদানিকৃত পন্য সহজে খালাস করতে পারছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *