চট্টগ্রাম, , শনিবার, ৪ এপ্রিল ২০২০

প্রদীপ শীল রাউজান প্রতিনিধি

রাউজানে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও ক্ষণগননা কার্যক্রমের উদ্বোধন

প্রকাশ: ২০২০-০১-১০ ১৯:৩৬:৪৫ || আপডেট: ২০২০-০১-১০ ১৯:৩৬:৫৫

প্রদীপ শীল, রাউজানঃ

রাউজানে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ক্ষণগননা কার্যক্রমের উদ্বোধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে । ১০ জানুয়ারি শুক্রবার বিকালে রাউজান সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মাঠে জমকালো আয়োজনের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হয়।

রাউজান উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত মুজিববর্ষের ক্ষণগননা কার্যক্রমের উদ্বোধক ছিলেন ভারতীয় হাই কমিশনার শ্রীমতি রীভা গাঙ্গুলী দাশ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রেলপথ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি এম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জোনায়েদ কবির সোহাগের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন ভারতীয় হাই কমিশনের প্রথম সেক্রেটারী আনিদ্য ব্যানার্জী, সেকেন্ড সেক্রেটারী শুভাশীষ সিংহা, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা লিকসন চৌধুরী ও অধ্যাপিকা সালসাবিন করিম চৌধুরীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন রাউজান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এহেছানুল হায়দর চৌধুরী, উপজেলার আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা কাজী আব্দুল ওহাব, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নুর মোহাম্মাদ, ভাইস চেয়ারম্যান ফৌজিয়া খানম মিনা, আওয়ামীগ নেতা আনোয়ারুল ইসলাম, শ্যামল পালিত, বশির উদ্দিন খান, জমির উদ্দিন পারভেজ, সাইফুল ইসলাম রানা, মুক্তিযোদ্ধা চেয়ারম্যান আব্বাস উদ্দিন আহম্মদ, রাউজান থানা অফিসার ইনচার্জ কেপায়েত উল্লাহ্ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে ভারতীয় হাই কমিশনার শ্রীমতি রীভা গাঙ্গুলী দাশ বলেন, মুক্তিযুদ্ধে বাংলাদেশী মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে ভারতীয় সৈন্যরা এক সাথে যুদ্ধ করেছিল। অনেক ভারতীয় সৈন্য মুক্তিযুদ্ধে প্রাণ হারিয়ে ছিল।

স্বাধীনতার পর থেকে ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক বন্ধুপ্রতীম। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকীর কাউন্ট ডাউন শুরুর মধ্যদিয়ে ভারতবাসীও দিনটি পালন করবে। এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী বলেন, ১০ জানুয়ারি একটি ঐতিহাসীক দিন। জাতির জনক পাকিস্তান কারাগার থেকে মুক্তি পেয়ে স্বাধীন দেশে স্বদেশ প্রত্যাবর্তন করেন।

তিনি বলেন, ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু জন্মশতবার্ষিকীর পালন করবে রাউজানবাসী। বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ক্ষণগননা কার্যক্রমের উদ্বোধন ও আলোচনা সভা শেষে কলেজ মাঠে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন তারকা শিল্পী বিন্দুকণা ও এসএ টুটুল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *