চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

admin

চন্দনাইশে সিআইপি মনোনীত হওয়ায় মোহাম্মদ বাদশা মিয়াকে সংবর্ধনা ও আলোচনা সভা

প্রকাশ: ২০২০-০১-১১ ১৭:৩৭:২৯ || আপডেট: ২০২০-০১-১১ ১৭:৩৭:৩৭

মো. নুরুল আলম, চন্দনাইশ প্রতিনিধি :

বৈদেশিক মুদ্রা প্রেরণ করে দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার জন্য জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কর্তৃক সিআইপি মনোনীত হওয়ায় চট্টগ্রামের চন্দনাইশ উপজেলার কাঞ্চনাবাদ ইউনিয়নের মুজাফফরাবাদ রিয়াদ এন্ড ফরহাদ টাওয়ারের স্বত্বাধিকারী বিশিষ্ট শিল্পপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ বাদশা মিয়াকে রিয়াদ এন্ড ফরহাদ টাওয়ার এর সকল পরিবারবর্গের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান, আলোচনা সভা, নৈশভোজ ও পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে।

এ উপলক্ষ্যে শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) রাতে রিয়াদ এন্ড ফরহাদ টাওয়ার প্রাঙ্গণে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব মো. আসহাব মিয়া কোম্পানির সভাপতিত্বে সাংবাদিক মোঃ নুুুুরুল আলমের সঞ্চালনায় আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চন্দনাইশ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোহাম্মদ আবদুল জব্বার চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন চন্দনাইশ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কেশব চক্রবর্ত্তী,
চন্দনাইশ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ সদস্য আলহাজ্ব আবু আহমেদ জুনু, কাঞ্চনাবাদ ইউ.পি চেয়ারম্যান মুজিবুর রহমান, গাছবাড়িয়া সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি শেখ টিপু চৌধুরী, চন্দনাইশ উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য জাগের হোসেন সওদাগর।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধান শিক্ষক আমজাদ হোসেন, সাবেক ইউ.পি সদস্য আলী মেম্বার, মাওলানা মাহমুদ উল্লাহ্, আবু তাহের, মোঃ জাহাঙ্গীর, আয়োজক কমিটির সদস্য আব্দুর রাজ্জাক, নুরুল আনোয়ার মাষ্টার, জাকের হোসেন মাষ্টার, বিকাশ ধর, ওমর ফারুক, জাহাঙ্গীর আলম, ব্যাংকার মো. রফিক আহমেদ, আরিফ উদ্দিন, ছত্তার, সেলিম, ইদ্রিচ ও বাবুল প্রমূখ।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, “দেশ স্বাধীন করেছেন মুক্তিযোদ্ধারা আর দেশকে স্বাবলম্বী করতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে চলছেন প্রবাসে থাকা রেমিটেন্স যোদ্ধারা। অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন প্রবাসীরা।”

সংবর্ধিত অতিথি মোহাম্মদ বাদশা মিয়া বলেন, “ওমানে বসবাসরত আট লক্ষ বাংলাদেশির মধ্যে যে ১২ জন সিআইপি নির্বাচিত হয়েছেন তাদের একজন হতে পেরে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করছি। হুন্ডি কিংবা অবৈধ পথে নয় ব্যাংকের মাধ্যমে দেশে টাকা পাঠানোর জন্য প্রবাসীদের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি।

পরে আলহাজ্ব মোহাম্মদ বাদশা মিয়া, তাঁর সন্তান সাজ্জাদ হোসেন রিয়াদ ও শারমিন সুলতানা রিমা এবং তাঁর মাতা হাজ্বী রাবেয়া খাতুনকে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *