চট্টগ্রাম, , রোববার, ২৯ মার্চ ২০২০

জাহেদুল হক আনোয়ারা প্রতিনিধি

আনোয়ারায় মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে ছাত্রকে বলৎকার : মাদ্রাসা পরিচালক গ্রেপ্তার

প্রকাশ: ২০২০-০২-০৮ ১৮:৩১:৫৮ || আপডেট: ২০২০-০২-০৮ ১৮:৩২:০৬


আনোয়ারা প্রতিনিধি :
ছুরি দিয়ে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে আনোয়ারা উপজেলার চালিতাতলী আনোয়ারুল উলুম মাদ্রাসার এক ছাত্রকে বলৎকার করার অভিযোগে মাদ্রাসা পরিচালক মাওলানা মুহিবুল্লাহকে (৩৮) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার সকালে মাদ্রাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে উপজেলার বরুমচড়া ইউনিয়নের বাসিন্দা ওই ছাত্রকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তার মুহিবুল্লাহ উপজেলার বারশত ইউনিয়নের চালিতাতলী গ্রামের মৃত নুরুল আলমের ছেলে।


ছাত্রটির মা জানান,গত শুক্রবার সকাল ১০টায় মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে ছেলেকে মাদ্রাসার একটি কক্ষে নিয়ে বলৎকার করে মাদ্রাসার পরিচালক মুহিবুল্লাহ।

এ সময় স্থানীয় লোকজন তা দেখে বিষয়টি পুলিশকে জানালে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগেও বেশ কয়েকবার কেফায়ত উল্লাহ নামের আরেক শিক্ষক ছেলেকে বলৎকার করেছিল।

বিষয়টি ছেলে আমাকে জানালেও মান-সম্মানের ভয়ে কাউকে না বলে মাদ্রাসা পরিচালককে জানাই। তখন পরিচালক মুহিবুল্লাহ এ ধরনের ঘটনা আর হবে না আশ্বাস দিয়ে ওই শিক্ষককে মাদ্রাসা থেকে বিদায় করে দেন।


ভিকটিম ছাত্র বলেন,ছুরি দিয়ে গলা কেটে মেরে ফেলার ভয় দেখিয়ে আমাকে চার-পাঁচবার খারাপ কাজ করেছে হুজুর। আমি অসুস্থ হয়ে পড়লে মা আমার চিকিৎসা করান। আমি হুজুরের পায়েও পড়েছি তবু রেহাই পায়নি।


আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ বলেন,মাদ্রাসা পরিচালক মুহিবুল্লাহকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বলৎকার করার কথা মুহিবুল্লাহ স্বীকার করেছেন। তার বিরুদ্ধে বলৎকারের অভিযোগে ছাত্রটির মা বাদি হয়ে থানায় মামলা দেয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

এদিকে,ছাত্রটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *