চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০

নুরুল আলম, চন্দনাইশ(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

চন্দনাইশে মাটি কাটার দায়ে ১লক্ষ ৭০ হাজার টাকা জরিমানা : ৩টি স্কেভেটর জব্দ

প্রকাশ: ২০২০-০২-১৬ ২০:৪১:২১ || আপডেট: ২০২০-০২-১৬ ২০:৪১:২৮


মো. নুরুল আলম, চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি :
চন্দনাইশে কৃষি জমি থেকে অবৈধভাবে মাটি কাটার দায়ে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে তিনটি স্কেভেটর জব্দ করা হয়েছে।

গত (১৬ ফেব্র্রুয়ারি) রোববার বিকেলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) নিবেদিতা চাকমার নেতৃত্বে উপজেলার সাতবাড়িয়া (আরিফ শাহ পাড়া) ও বরমা মাইগাতা এলাকায় অভিযান চালিয়ে জব্দ করা হয়।


জানা যায়, এ সময় অবৈধভাবে কৃষি জমি থেকে মাটি কাটার সময় তিনটি স্কেভেটর ও মাটির কাটার দায়ে উপজেলার মাইগাতা এলাকার মো: বোরহান উদ্দিনের ছেলে ব্যবসায়ী মো. মুরাদ উদ্দিন ও সাতবাড়িয়া আরিফ শাহ পাড়া এলাকার মৃত নুরুল আলমের ছেলে ব্যবসায়ী মো. ইউনুসকে বালু মহাল ও মাটি ব্যবস্থাপনা আইন ২০১০ এর ৪এর ধারা ১৫(১) ধারায় মো. মুরাদ উদ্দিন ১লক্ষ ৫০হাজার টাকা ও মো. ইউনুস ২০হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।


এলাকার সচেতন মহল অভিযোগ করেন, পরিবেশ বিষয়ে সচেতনতার অভাবে জমির মালিকরা এক শ্রেনীর মুনাফা লোভীর প্রলোভনে পড়ছে কৃষি জমির টপ সয়েল বিক্রি করে দীর্ঘ মেয়াদী ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে।


উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ভারপ্রাপ্ত) ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) নিবেদিতা চাকমা জানান, এভাবে মাটি কাটার ফলে মাটির জৈব শক্তি কমে গিয়ে দীর্ঘ মেয়াদী ক্ষতির মুখে পড়ছে মানুষ। কৃষি জমির টপ সয়েল বিক্রির ফলে জমির উর্বরতা হারাচ্ছে।

আগামীতে খাদ্য ঘাটতিসহ পরিবেশ বিপর্যয়র ফলে ফসলি জমি হুমকির মুখে পড়বে। এধরণের অপরাধ মূলক কাজে কখনো সামান্যতম ছাড় দেয়া হবেনা বলেও তিনি জানান।


ভ্রাম্যমান আদালত অভিযানের সময় উপস্থিত ছিলেন ভূমি অফিসের কানুনগো শোকহরন চাকমা, সার্ভেয়ার আবদুল মোমিন, শিবলু, মিনার, ইউসুফ, বরুণ, মিজার, প্রদীপ প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *