চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০

নুরুল আলম, চন্দনাইশ(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

চন্দনাইশে ৩ দিনব্যাপী আবুল কাশেম বইমেলা শুরু

প্রকাশ: ২০২০-০২-১৯ ১৯:৫৮:১৯ || আপডেট: ২০২০-০২-১৯ ১৯:৫৮:২৬

মো. নুরুল আলম, চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি :

বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. সরোজ সিংহ হাজারী বলেছেন, প্রিন্সিপাল আবুল কাশেম তমদ্দুন মজলিস প্রতিষ্ঠা করার মধ্যদিয়ে ভাষা আন্দোলনের সূচনা করেছিলেন। ১৯৪৭ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর ভাষা আন্দোলনের ঘোষণাপত্র বাংলা না উর্দু প্রকাশ করে প্রকাশ্যে ভাষা আন্দোলনের কর্মসূচী ঘোষণা করেন।

সে ধারাবাহিকতায় ১৯৪৮ সালের মার্চ হরতাল, পিকেটিং, সচিবালয় ঘেরাও করার মধ্যদিয়ে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীকে রাষ্ট্রভাষা সংগ্রাম পরিষদের ৮দফা দাবি মেনে নিয়ে চুক্তি স্বাক্ষর করান। এর মাধ্যমে সুচিত হয় ভাষা আন্দোলনের প্রথম বিজয়। ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি রক্তাক্ত বিষ্ফোরণের মাধ্যমে গৌরবোজ্জল অধ্যায়ের সুচিত হয়।

গতকাল ১৯ ফেব্রুয়ারি বিকেলে চন্দনাইশ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে প্রিন্সিপাল আবুল কাশেম ট্রাস্টের উদ্যোগে ৫ম বারের মতো ৩দিনব্যাপী বই মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বিজিসি ট্রাস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. সরোজ সিংহ হাজারী।

নোমান উল্লাহ বাহারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন চন্দনাইশ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল জব্বার চৌধুরী। প্রধান আলোচক ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক সরওয়ার মোর্শেদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন লেখক ও ভাষা আন্দোলন ইতিহাস গবেষক মাহমুদ বিন কাসেম।

আলোচনা সভা চন্দনাইশ ছাত্র সমিতি -চট্টগ্রাম এর সাধারণ সম্পাদক বোরহান উদ্দীন গিফারীর ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সংগঠক তানভীর আহমেদ সিদ্দিকী সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন অধ্যক্ষ মো. আবদুল মমিন, চন্দনাইশ প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ এরশাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. নুরুল আলম, অর্থ সম্পাদক মো. শাহাদাত হোসেন, আমিনুল ইসলাম রুবেল, মো. নুরুল হক চৌধুরী, লেখক শাহজাহান আজাদ, প্রধান শিক্ষক টিকলু দাশ, সাংবাদিক ও লেখক ছৈয়দ শিবলী ছাদেক কফিল, যুবনেতা লোকমান হাকিম প্রমুখ।

৩ দিনব্যাপী বই মেলায় লেখকদের সাম্প্রতিক প্রকাশিত বইয়ের প্রকাশনা, স্মরণিকা প্রকাশ, কবিগান, পুঁথিপাঠ, পিঠা উৎসব, কবিতা আবৃত্তি, জারিগান, বিতর্ক প্রতিযোগিতা, চিত্রাংকন-সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং ঐতিহাসিক ছবি প্রদর্শনী ইত্যাদি আয়োজন করা হয়।
এছাড়াও এতে বইসহ বিভিন্ন জিনিষপত্রের বিকিকিনির মেলা বসবে।

আজ ২০ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দিনে সভাপতিত্ব করবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পালি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. জিনবোধি ভিক্ষু। প্রধান অতিথি থাকবেন চন্দনাইশ পৌরসভা মেয়র আলহাজ্ব মু. মাহাবুবুল আলম (খোকা)। প্রধান আলোচক থাকবেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর–চট্টগ্রাম অঞ্চলের ড. আজাদ বুলবুল।

কাল ২১ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি থাকবেন চট্টগ্রাম -১৪ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

সভাপতিত্ব করবেন বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক মাহমুদ বিন কাসেম।প্রধান আলোচক থাকবেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের চেয়ারম্যান ড. অধ্যাপক সুকান্ত ভট্টাচার্য্য বিশেষ আলোচক থাকবেন লেখক শামসুল আরেফীন, চন্দনাইশ প্রেসক্লাবের সভাপতি মো. দেলোয়ার হোসেন। (ছবি আছে)

মেলা চলবে ২১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। প্রতিদিন বেলা তিনটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত মেলা উন্মুক্ত থাকবে সবার জন্য। মেলায় স্থান পেয়েছে ১২টি স্টল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *