চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ৪ ডিসেম্বর ২০২০

ফারুক খান তুহিন

রনাঙ্গনে যোদ্ধাদের মতই একজন প্রবাসী!

প্রকাশ: ২০২০-০৩-২৯ ২১:০৫:৩৯ || আপডেট: ২০২০-০৩-২৯ ২১:০৫:৪২

গত কয়েকদিন যাবত প্রবাসীদের নিয়ে যেসব কটুক্তি করা হচ্ছে তার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। একেকটা প্রবাসি একটা মোমবাতির আলো। প্রবাসিরা নিজে জ্বলে পরিবার প্রতিবেশী সমাজ তথা দেশের উন্নয়নে বড় ভূমিকা পালন করছে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণে যখন সারা পৃথিবী তাদের সীমান্ত বিমানবন্দর জল বন্দর বন্ধ করে দিয়েছে তখন আমাদের সরকারের মন্ত্রীরা তুচ্ছতাচ্ছিল্য করেছে! প্রবাসীদের কারনে ভাইরাস সংক্রমণ হতে পারে এমন ধারনা যখন বিশেষজ্ঞ মহল আগাম জানান দিয়েছে তখন কেন আমাদের বিমানবন্দর বন্ধ করা হল না? খোলা যখন রেখেছে তখন কেন ৩ টি স্ক্যানারের মধ্যে ২টি নষ্ট ছিল। বিমানবন্দর, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্তাদের অবহেলার কারণে কিছু প্রবাসী বিমানবন্দর ত্যাগ করতে পেরেছে। যার কারনে ভাইরাস সংক্রমণ দেখা দিয়েছে! যারা দায়িত্ব অবহেলা করেছে তাদেরকে দোষারোপ কিংবা আইনের আওতায় না এনে পুরো দোষটা প্রবাসীদের উপর ছেড়ে দিল! প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সে যারা লাভবান তারা (ব্যাংক, ব্যাবসায়ীরা) প্রবাসীদের যাতায়াত বন্ধে দোকান ব্যাংকে প্রবেশ নিষেধ সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে রেখেছে! পররাষ্ট্রমন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রীর কথায় বুঝা যার প্রবাসীরা দেশের শত্রু! অথচ এই প্রবাসীদের কারনেই তারা আজকের মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী। প্রবাসীদের নিয়ে যত কটুকথা বলা হচ্ছে ভাবুন তো, রেমিট্যান্স না পাঠালে দেশের অবস্থা কি হবে? প্রবাসীদের নিয়ে বাজে মন্তব্য যারা করে যাচ্ছেন তারা দেশ ও জাতির শত্রু। প্রবাসীদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিন, না হয় এই প্রবাসীরা একসময় ক্ষমা করার সময় দিবে না আপনাদের। আজ আপনারা ইট ছুঁড়ছেন, একটা সময় পাটকেল খেতে হবে প্রবাসীদের থেকে। দেশের ক্রান্তিলগ্নে সকলে এক কাতারে থাকতে চাই।

লেখক: শেখ খোরশেদ আলম

প্রধান উপদেষ্টা মিরসরাই জাতীয়তাবাদী ফোরাম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *