চট্টগ্রাম, , সোমবার, ১৯ অক্টোবর ২০২০

নুরুল আলম, চন্দনাইশ(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

৪০ মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিলেন চন্দনাইশ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা

প্রকাশ: ২০২০-০৪-০৯ ২০:১৪:২১ || আপডেট: ২০২০-০৪-০৯ ২২:৫৩:২৭

মো. নুরুল আলম, চন্দনাইশ (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি :: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটিতে অসহায় অবস্থায় থাকা দিনমজুর ও নিম্ন আয়ের মানুষকে খাদ্য সামগ্রী দিয়ে সহায়তা করে আসছে চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ তথা চন্দনাইশ থানা পুলিশ সদস্যরা। ফোনে পুলিশকে জানালে মধ্যবিত্ত পরিবারের সদস্যদের জন্যও গোপনে খাদ্য সামগ্রী নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এবার চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হকের নির্দেশে মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতেও খাদ্য সামগ্রী নিয়ে হাজির হচ্ছেন চন্দনাইশ থানার পুলিশ সদস্যরা। বৈশ্বিক দুর্যোগ করোনা পরিস্থিতিতে চট্টগ্রামে চন্দনাইশ উপজেলায় ২টি পৌরসভা ও ৮ টি ইউনিয়নে বিভিন্ন এলাকায় রোববার (৯ এপ্রিল) দুস্থ ও অস্বচ্ছল ৪০ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বাড়ি বাড়ি খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিয়েছে ‘চন্দনাইশ থানা পুলিশ’। চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হকের নির্দেশনা মোতাবেক করোনা পরিস্থিতিতে চন্দনাইশে দুস্থ ও অস্বচ্ছল ৪০ জন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা করে তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ”উপহার” হিসেবে এসব খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন চন্দনাইশ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কেশব চক্রবর্ত্তী।

এ সময় চন্দনাইশ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার জাফর আলী হিরু ও সঙ্গীয় পুলিশ সদস্যবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উপহার সামগ্রীর প্রতিটি প্যাকেটে চাল, ডাল, আলু, পিঁয়াজ, তেল, লবন, আটা, সাবান ও ডিটারজেন্ট সরবরাহ করা হয়। বিভিন্ন মুক্তিযোদ্ধারা বলেন, বিভিন্ন মুক্তিযোদ্ধাদের বাড়িতে হঠাৎ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা (ওসি)কে দেখে অবাক হয়েছে অনেক মুক্তিযোদ্ধা। তারা বলছেন খাদ্যসামগ্রী নিয়ে এসেছে সেটি বড় নয়, এসে খোঁজ খবর নিয়েছে সেটাই অনেক কিছু। অনেক মুক্তিযোদ্ধা অসুস্থ। ওসি কিছু লাগবে কী না জানতে চেয়েছেন তাদের। তারা বলছে- বাবা, এভাবে মানুষের সেবা করে যান। মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার জাফর আলী হিরু বলেন, পুলিশ বাহিনীর প্রতিটি সদস্যের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। তারা করোনার বর্তমান পরিস্থিতিতে যেভাবে কাজ করছেন তা খবরে দেখে খুব গর্ব হয় আমার। আজ মনে হচ্ছে আমরা যে কারণে মুক্তিযুদ্ধ করেছি তা সফল। পুলিশের এসব সদস্যরা আমাদের যোগ্য উত্তরসুরী। তাদের জন্য মন থেকে দোয়া করি।

চন্দনাইশ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কেশব চক্রবর্ত্তী বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা জাতির সূর্যসন্তান। এই বৈশ্বিক ক্রান্তিকালে মহান মুক্তিযুদ্ধের বীর সৈনিকদের স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় কোনো সমস্যা হচ্ছে কিনা তা জানার জন্য এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য চট্টগ্রাম জেলা পুলিশ সুপার স্যার আমাদের নির্দেশ দিয়েছেন। বিভিন্ন এলাকায় খবর নিয়ে মুক্তিযোদ্ধাদের বাসা-বাড়িতে যাচ্ছি আমরা। তিনি আরোও বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের বাড়ি গিয়ে উনাদের খোঁজখবর নিচ্ছি এবং যাদের প্রয়োজন তাদেরকে খাদ্য সামগ্রী এবং প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *