চট্টগ্রাম, , রোববার, ২৯ নভেম্বর ২০২০

ফারুক খান তুহিন

বান্দরবানে করোনা ভাইরাস পরীক্ষার জন্য সন্দেহভাজন ২ জনের নমুনা সংগ্রহ

প্রকাশ: ২০২০-০৪-১১ ১৯:৪৯:০১ || আপডেট: ২০২০-০৪-১১ ১৯:৪৯:০৫

বেলাল আহমদ, বিশেষ প্রতিনিধি, বীর কন্ঠ: বান্দরবানের লামায় করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য সন্দেহভাজন ২ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। লামায় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন না থাকায় সন্দেহভাজনদের নিজ বাড়িতে আলাদা কক্ষে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে। লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, নারায়ণগঞ্জ ফেরত দুই জনের বাড়িতে লাল পতাকা দিয়ে চিহ্নিত করে দেয়া হয়েছে।

আগামী ২৬ এপ্রিল ২০২০ইং পর্যন্ত এই পরিবারের লোকজন বাহিরে যাবে না এবং কেউ তাদের বাড়িতে যাবে না। নারায়ণগঞ্জ ফেরত দুই জন মোঃ ফারুক পিতা- মো. হুমায়ন ও মোঃ রাশেদ পিতা- মো. জাহাঙ্গীর। দুইজনেই লামা পৌরসভার লামামুখ এলাকার বাসিন্দা। লামামুখের এই দুই বাড়িতে (আলী মিয়া ও মোঃ হুমায়নের বাড়ি) সকলকে প্রবেশ করতে নিষেধ করেছে প্রশাসন।

লামা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদুল হক জানিয়েছেন, শনিবার (১১ এপ্রিল) বেলা ১১ টায় লামা পৌরসভার ৫ ওয়ার্ডের লামামুখ এলাকা হতে নারায়ণগঞ্জ ফেরত ২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে বান্দরবান জেলা হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে। সেখান থেকে নমুনা গুলো পরীক্ষার জন্য ঢাকা আইইডিসিআর সেন্টারে পাঠানো হবে। তিনি আরো জানান, ইতি পূর্বে লামায় ২৬ জনকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছিল। নির্দিষ্ট সময় অতিবাহিত হওয়ায় এবং কোন লক্ষণ দেখা না যাওয়ায় তাদের অবমুক্ত করা হয়েছে। লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি,জানান,বিদেশ ফেরত ও করোনা ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হতে আসা লোকজনকে সনাক্ত করে তাদের পারিবারিক হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হচ্ছে এবং স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে তাদের স্বাস্থ্যের খোঁজখবর রাখা হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, হোম কোয়ারেন্টিনে থাকাদের স্বাস্থ্য সেবার পাশাপাশি অন্যান্য সহযোগিতাও করা হচ্ছে। স্থানীয় ও জনপ্রতিনিধিদের সূত্রে জানা যায়, লক ডাউনে সাধারণ মানুষকে ঘরমুখি করতে প্রশাসনের উদ্যোগ ও প্রচেষ্টা প্রশংসনীয়। সার্বক্ষণিক নন স্টপ কাজ করে যাচ্ছে প্রশাসন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *