চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০

আব্দুল্লাহ মনির, টেকনাফ(কক্সবাজার) প্রতিনিধি

টেকনাফে উদ্ধার হওয়া ৩৯৬ জন রোহিঙ্গা হোমকোয়ারেন্টাইনে

প্রকাশ: ২০২০-০৪-১৬ ২২:০৩:৩৬ || আপডেট: ২০২০-০৪-১৬ ২২:০৩:৪১

আবদুল্লাহ মনির, টেকনাফ

কক্সবাজারের টেকনাফে বাহারছড়া উপকূল থেকে ট্রলারসহ উদ্ধার হওয়া ৩শ ৯৬ জন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশুদের ২টি ট্রানজিট পয়েন্টে ১৪দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে নেওয়া হয়েছে।
উদ্ধার হওয়াদের মধ্যে , নারী ১৮২ জন, শিশু ৬৪ জন ও পুরুষ ১৫০ জন। এসব রোহিঙ্গাদের কে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইন রাখা হবে জানিয়েছে প্রশাসন। এসব রোহিঙ্গারা উখিয়া, জামতলি, লেদা, শাপলাপুর,নয়াপাড়া, শালবাগান সহ বিভিন্ন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বসবাসকারী।

১৬ এপ্রিল (বৃহস্পতিবার) বিকালে উদ্ধারকৃত ৩শ ৯৬ জন রোহিঙ্গা নারী- পুরুষ ও শিশুদের ইউএনএইচসিআরের নিকট হস্তান্তর করে কোস্টগার্ড ।

কোষ্টগার্ড টেকনাফ ষ্টেশন কমান্ডার সোহেল রানা সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, উদ্ধার হওয়া ৩৯৬ জন রোহিঙ্গাদের উখিয়া ও টেকনাফ বরইতলী ট্রানজিট ঘাট এবং নয়াপাড়ায় ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে।

উদ্ধার হওয়া রোহিঙ্গা মো.জোবাইর বলেন, গত দুই মাস আগে প্রায় ৫ শ জন রোহিঙ্গা নিয়ে একটি ট্রলার সাগর পথে মালয়েশিয়ার পথে রওয়ানা দেয়। কিন্তু সে দেশে কড়াকড়ির কারণে ঢুকতে না পেরে এখানে ফিরে আসে। সাগরে এত দিন ভাসমান ছিলাম। এখন ট্রলারে ৩৯৬জন রয়েছে। তাদের ট্রলারে বিভিন্ন সময় ২৮ জন মারা গেছে।
তিনি আরো বলেন ,যখন আমরা ট্রলারটি জাহাজপুরা এলাকায় পৌঁছে তখন ট্রলার থেকে কিছু লোকজন প্রশাসন পৌঁছার আগে লোকজন বিভিন্ন এলাকায় ঢুকে পড়েছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার রাতে টেকনাফ বাহারছড়া এলাকার জাহাজপুরা সমুদ্র এলাকায় ৩৮২জন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ ও শিশু নিয়ে একটি জাহাজ থেকে তাদেরকে উদ্ধার করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ, কোস্টগার্ড ও বিজিবি সদস্যরা রোহিঙ্গাদের ঘিরে রাখে এবং ভোরে তাদের টেকনাফ ট্রানজিট ঘাটে আনা হয়। এরপর তাদের মানবিক সহায়তা দিয়ে ইউএনএইচসিআর কর্তৃপক্ষের নিকট হস্তান্তর করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *