চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

মিজবাউল হক চকরিয়া অফিস

চকরিয়া ইভটিজিংয়ে বাধা দেয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় মাদ্রাসা সুপারসহ আহত-৫

প্রকাশ: ২০২০-০৪-১৮ ২০:২৪:৩৭ || আপডেট: ২০২০-০৪-১৮ ২০:২৪:৪১

মিজবাউল হক, চকরিয়া ঃ ইভটিজিংয়ে বাধা দেয়ায় শোয়াইবুল ইসলাম (৩৫) নামের এক মাদ্রাসা সুপারের উপর সন্ত্রাসী হামলা করেছে সন্ত্রাসীরা। এসময় তাদের হামলায় আরও ৫জন কমবেশি আহত হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত শুক্রবার রাত ৯টার দিকে উপজেলা বিএমচর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের বহদ্দারকাটা পানীরনাল নামকস্থানে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় লোকজন জানান, মাওলানা শোয়াইবুল ইসলাম কোনাখালী পুরুত্যাখালী আল আমিন সুন্নীয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার হিসেবে দায়িত্ব রয়েছেন। সারাদেশে করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে মাদ্রাসা বন্ধ থাকায় বেশ ক’দিন তার গ্রামের বাড়ি বিএমচর ইউনিয়ননের বহদ্দারকাটা এলাকায় অবস্থান করছিলেন। তিনি গত শুক্রবার রাত ৯টার দিকে বাড়ির সামনে হাটা চলা করছিল। ওইসময় একই এলাকার বখাটে যুবক মামুন (৩৫), আরিফ (২৬) ও ইলিয়াস (২২) স্থানীয় এক নারীকে ইভটিজিং করে। ইভটিজিংয়ের বিষয়টি শোয়াইবুল ইসলামকে জানানো হয়। পরে তিনি বাধা দেয়ার চেষ্ঠা করে। এতে বখাটেরা ক্ষিপ্ত হয়ে মাদ্রাসা সুপারের উপর দা পিরিচ দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মক ভাবে জখম করে। ওইসময় শোয়াইবুল ইসলাম চিৎকার করলে তার স্বজনরা এগিয়ে আসে। পরে সন্ত্রাসীরা স্বজনদের উপর হামলা চালিয়ে আহত করে। এসময় তাদের হামলায় আহত হন, শফিক (২৮), মন্নান (২২), দস্তগীর (৩৪)। তাদের কাছে থাকা দামী মোবাইল ফোন ও নগদ টাকাও লুট করে নিয়ে যায় বখাটেরা। স্বজনরা তাদেরকে উদ্ধার করে চকরিয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। তবে শোয়াইবুল ইসলামের আশঙ্কা জনক বলে জানান স্বজনরা। হামলার ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা করা হবে বলেও জানান স্বজনরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *