চট্টগ্রাম, , রোববার, ১ আগস্ট ২০২১

এডমিন বীর কন্ঠ

রাঙ্গুনিয়ার নিত্য হাট-বাজারে উপেক্ষিত সামাজিক দূরত্ব !

প্রকাশ: ২০২০-০৪-১৯ ২০:৪৬:২৬ || আপডেট: ২০২০-০৪-১৯ ২০:৪৬:৩৩

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি:

নিত্য প্রয়োজনীয় বাজার খোলা মাঠে বসার নির্দেশনা থাকলেও চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কাঁচা বাজারসহ নিত্য বাজার এখনো সরিয়ে নেয়নি। সামাজিক দুরত্ব উপেক্ষা করে প্রতিদিন এসব বাজারে মানুষের ভিড় ঠাসাঠাসি। তবে উপজেলা প্রশাসন বলছে, সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করতে বেশ কয়েকটি বাজার খোলা মাঠে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। খোলা মাঠে সব বাজার সরিয়ে নিতে কাজ করা হচ্ছে। শনিবার (১৮ এপ্রিল)সকালে স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়নের মোগলের হাট বাজারে গিয়ে দেখা যায় প্রচুর মানুষ। ঠাসাঠাসি করে সব্জি-মাছ কিনছে ক্রেতারা। জানতে চাইলে সব্জি বিক্রেতা মো. আলমগীর বলেন, ” প্রতি সপ্তাহে এই হাটে তিনি সব্জি বিক্রি করেন খোলা মাঠে বাজার বসার বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানান তিনি। হাটে আসা স্থানীয় ক্রেতা মনোজ কান্তি বিশ্বাস বলেন, খোলা মাঠে বাজার বসার কথা শুনে বাজারে আসলাম। দেখি বাজার আগের জায়গায় বসেছে। করোনা সংক্রমনের ঝুঁকি এড়াতে পাশ্ববর্তী স্কুল মাঠে সাপ্তাহিক হাটটি বসলে ভালো হতো। জানতে চাইলে স্থানীয় স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউপি(ইউনিয়ন পরিষদ) চেয়ারম্যান মো. নুরুল্লাহ বলেন, ” বাজারটি মাঠে সরিয়ে নিতে ইজাদারকে বলা হয়েছিল। তাছাড়া বাজারে এখন মানু্ষ কমে আসছে ।এদিকে শুক্রবার (১৭ এপ্রিল)উপজেলার বড় বাজার হিসাবে পরিচিত পৌরসভার রোয়াজারহাট বাজারেও ছিল মানুষের ভিড় । এটিও খোলা মাঠে সরানো হয়নি। শুক্রবার ও সোমবার এখানে নিয়মিত হাটের দিন। গরু, ছাগল, পশুপাখি, শাক সবজি, তরকারি থেকে থেকে শুরু করে এমন কোন পণ্য নাই যা রোয়াজারহাটে মেলে না। জানতে চাইলে রোয়াজারহাট ব্যবসায়ী সমিতির জ্যেষ্ট সহসভাপতি বদিউল খায়ের লিটন চৌধুরী বাজারে মানুষের ভিড়ের কথা উল্লেখ করে বলেন, ” বাজারের ইজাদারকে খোলা মাঠে হাট সরিয়ে নিতে বলা হয়েছে। ” অন্যদিকে মরিয়মনগর ইউনিয়নের মরিয়মনগর চৌমুহনী এলাকায় নিত্য সকালে বসা পাইকারি মাছের বাজারটি শনিবার বন্ধ করা হয়েছে। বন্ধ হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে মরিয়মনগর চৌমুহনী ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. ইলিয়াছ বলেন, মানুষের প্রয়োজনীয় মাছের বাজারটি একেবারে বন্ধ করা ঠিক হবেনা এটি খোলা মাঠে স্থানান্তরের ব্যবস্থা হচ্ছে। স্থানীয় বাসিন্দা করিম উদ্দিন বলেন, ” এখান থেকে পাইকারি দামে মাছ ব্যবসায়ীরা মাছ কিনে বিভিন্ন হাটে বিক্রি করেন। আজ বাজারটি বন্ধ থাকায় কেজি প্রতি ৮০ থেকে ১০০ টাকা মাছের দাম বেড়ে যায়। সবাই করোনা সংক্রমন থেকে বাঁচতে চায়। বাজারটি খোলা মাঠে বসলে মানুৃষের চাহিদা মেটানোর পাশাপাশি করোনা ঝু্ঁকি এড়ানো যেত। “
স্থানীয় ব্যবসায়ী মাহাবুবুল আলম সিকদার বলেন, মানুষ সচেতন না হলে বাজারে ভিড় কমানো কিছুতেই সম্ভব নয়। এমন পরিস্থিতি চলতে থাকলে হাট-বাজার থেকে ভয়াবহ করোনা সংক্রমন হতে পারে। যা সবার জন্য বিপদের কারণ হবে। “
জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) মো. মাসুদুর রহমান বলেন,” সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করতে হাট-বাজারগুলো খোলা মাঠে সরিয়ে নিতে স্ব স্ব ব্যবসায়ী ও সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বেশ কয়েকটি বাজার খোলা মাঠে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। সবকটি সরিয়ে নিতে কাজ করছে প্রশাসন। ছবির ক্যাপশন – বাজারটি সরিয়ে খোলা মাঠে নেয়ার কথা থাকলেও নেয়া হয়নি। ছিল প্রচুর মানুষের ভিড়। আজ শনিবার সকালে চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার হোছনাবাদ ইউনিয়নের স্বনির্ভর রাঙ্গুনিয়া ইউনিয়নের মোগলের হাট এলাকা থেকে তোলা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *