চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর ২০২০

শংকর চৌধুরী খাগড়াছড়ি জেলা প্রতিনিধি

খাগড়াছড়ি সবুজ পাহাড়ের বাঁকে আর্ট ক্যাম্প : শিল্পীর তুলিতে ঐতিহ্য

প্রকাশ: ২০২০-১০-২৩ ১৭:৩১:২৫ || আপডেট: ২০২০-১০-২৩ ১৭:৩১:৩০

শংকর চৌধুরী.খাগড়াছড়ি॥
খাগড়াছড়ির সংসদস্য ও প্রতিমন্ত্রী পদ-মর্যাদার ভারত প্রত্যাগত শরণার্থী বিষয়ক টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা বলেছেন, শিল্পীরা নিজেদের সংকট ঢেকে শিল্পর্চ্চার মাধ্যমে সমাজকে আলোকিত করেন। বুধবার (২১ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১ টায় খাগড়াছড়ি ‘ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট হলরুমে, ‘নিজেদের জীবনের চেয়ে দেশ-সমাজের মনন সমৃদ্ধি’ “সবুজ পাহাড়ের বাঁকে” শীর্ষক পাঁচদিন ব্যাপী আর্ট ক্যাম্প উদ্বোধন কালে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, পাহাড়ের জীবন-জীবিকা, কৃষ্টি, সংস্কৃতি আর ঐতিহ্যের শৈল্পিক প্রতিচ্ছবি তুলে ধরার প্রত্যয়েই শিল্পীদের দায়িত্ব। শত প্রতিকূলতা আর সীমাবদ্ধতার মধ্যেও সেই দায়বদ্ধতার প্রতিফলন আমরা দেখতে পাচ্ছি পাহাড়ি জনপদের শিল্পী ও সংস্কৃতিসেবীদের অবদানে। খাগড়াছড়ির মতো পাহাড়ী জনপদে ৫ দিনের আর্ট ক্যাম্প আয়োজন যেমন প্রশংসার তেমনি এর মাধ্যমে নতুন প্রজন্ম খুঁজে পাবে নিজেদের শিল্পিত ভবিষ্যত।

খাগড়াছড়ি ‘ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট’ তিন পার্বত্য জেলার চিত্রশিল্পীদের নিয়ে ৫ দিন ব্যাপী বৃহৎ এই আর্ট ক্যাম্প এর আয়োজন করেছে। এতে চিত্রশিল্পীদের সংগঠন ‘হিল আর্টিস্ট গ্রুপ’র সদস্যরা অংশগ্রহণ করেছেন। পার্বত্য চট্টগ্রাম শরণার্থী পুর্নবাসন টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান (প্রতিমন্ত্রী) কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা প্রধান অথিতি হিসাবে উপস্থিত থেকে আর্ট ক্যাম্পের শুভ উদ্বোধন করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, হিল আর্টিস্ট গ্রুপের সহ-সভাপতি ধনমণি চাকমা এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের শিক্ষক হ্লাবাইসু চৌধুরী। আর্ট ক্যাম্প উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, খাগড়াছড়ি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউটের উপ-পরিচালক জীতেন চাকমা।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী শিল্পকর্ম চর্চা এবং নিয়মিত প্রর্দশনের লক্ষ্যে খাগড়াছড়ি জেলাশহরে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় একটি আধুনিক রুচিসম্মত ‘আর্ট গ্যালারি’ নির্মাণের প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট এর উপ-পরিচালক জিতেন চাকমা জানান, শিল্পীদেরকে শিল্প উপকরণ হস্তান্তরের মাধ্যমে শুরু হবে ৫ দিন ব্যাপী এই আর্ট ক্যাম্পের। প্রথম দিনে মূলত শিল্পীরা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের নিয়ে একটি আর্ট ওয়ার্কশপ পরিচালনা করবেন। পরবর্তী ৪ দিন চিত্রশিল্পীরা খাগড়াছড়ির কয়েকটি স্থানে গিয়ে ছবি আঁকবেন। তাঁরা খাগড়াছড়ির মনোরম প্রাকৃতিক দৃশ্য, এখানকার মানুষের যাপিত জীবন, সাংস্কৃতিক বৈচিত্রতা, পরিবেশ প্রতিবেশ ইত্যাদি বিষয় নিয়ে তাদের ক্যানভাস রাঙিয়ে তুলবেন এমন প্রত্যাশা নিয়ে শুরু হয়েছে এই আর্ট ক্যাম্পটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *