চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১

admin

রাজনৈতিক ক্যারিয়ার রক্ষায় বাবার বিরুদ্ধে যাচ্ছেন ট্রাম্পকন্যা

প্রকাশ: ২০২১-০১-১২ ১৯:৫২:১৩ || আপডেট: ২০২১-০১-১২ ১৯:৫২:১৮

বিদেশ ডেস্ক|
বাবার জন্য নিজের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারকে নষ্ট করতে চান না ট্রাম্পকন্যা ইভানকা ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে তার সুনাম থাকার কারণে নিজের রাজনৈতিক ক্যারিয়ারকে রক্ষায় পিতা ট্রাম্পের মতের বিরুদ্ধে যাওয়ার পরিকল্পনা নিয়েছিলেন ইভানকা। তাই আগামী ২০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত জো বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হতে চেয়েছিলেন।

কিন্তু ইভানকা এ পর্যন্ত সব সিদ্ধান্তের মধ্যে এটি সবচেয়ে খারাপ সিদ্ধান্ত আখ্যা দিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন ট্রাম্প। হোয়াইট হাউজের ভেতরকার সূত্রকে উদ্ধৃত করে অনলাইন ডেইলি মেইল এ তথ্য জানিয়েছে। এতে বলা হয়, ইভানকা ট্রাম্প তার উচ্চাভিলাষী রাজনৈতিক ক্যারিয়ারকে রক্ষা করতে চান। এজন্য হোয়াইট হাউজ যখন নানা রকম বিশৃঙ্খল অবস্থায় ডুবে আছে তখন বাইডেনের শপথ অনুষ্ঠানে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি।

একটি সূত্র বলেছেন, ট্রাম্প শপথ অনুষ্ঠানে না যাওয়ার কারণে ইভানকা বেশ উদ্বিগ্ন। তিনি নিজেও যদি এতে উপস্থিত না হন তাহলে তার প্রতিশ্রুতিশীল রাজনৈতিক ক্যারিয়ার ক্ষতিগ্রস্ত হবে। তাই তিনি সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নিজের সুনাম ধরে রাখার জন্য তিনি যা কিছু করতে পারেন। কিন্তু এতে বাধ সেধেছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, ইভানকা ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিলে তা হবে একটি অবমাননা। এর অর্থ হবে, সে এসব কারসাজিকারীদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। ওইসব লোক তাকে ক্ষমতা থেকে নামানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

হোয়াইট হাউজের ভেতরকার ওই সূত্র জানায়, ট্রাম্প বলেছেন- পরিবারকে সব সময় একত্রিত থাকতে হবে। একই ফ্রন্টে অবস্থান করতে হবে। ওই সূত্রগুলো বলেছেন, প্রেসিডেন্ট তার মেয়েকে বলে দিয়েছেন- অনুষ্ঠানে উপস্থিত হলে ইভানকার হাজার হাজার সমর্থক কষ্ট পাবে ও এটা হবে তার সবচেয়ে খারাপ সিদ্ধান্ত।

তবে ইভানকা মনে করেছেন, তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত হলে তার ভবিষ্যত সমর্থকদের সমর্থন অর্জন করবেন। হোয়াইট হাউজের অন্য একটি সূত্র শপথ অনুষ্ঠানে ইভানকার উপস্থিত হওয়ার সম্ভাব্যতা নিয়ে যে রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে তা প্রত্যাখ্যান করেছেন।
ট্রাম্প পরিবারে এসব ঘটনা ঘটার সময় সংবিধানের ২৫তম সংশোধনী সক্রিয় করতে ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের ওপর চাপ বাড়ছে। এই সংশোধনীর ওপর ভিত্তি করে ট্রাম্পকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেয়া সহজ হবে।

আজ সোমবার (১২ জানুয়ারি) নাগাদ প্রতিনিধি পরিষদের ডেমোক্রেটরা ট্রাম্পকে দ্বিতীয় দফায় অভিশংসনের জন্য আর্টিকেল প্রকাশ করেছে। এতে তার বিরুদ্ধে সহিংস বিক্ষোভে উস্কানি দেয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *