চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২১

admin

সাতকানিয়ায় সরে গেলেন বিএনপি প্রার্থী, বিনা ভোটে আ’লীগের জয়

প্রকাশ: ২০২১-০১-২৭ ০০:৫১:১৪ || আপডেট: ২০২১-০১-২৭ ০০:৫১:১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক| সাতকানিয়া পৌরসভা নির্বাচনে সরে গেলেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী এডভোকেট এজেডএম মঈনুল হক চৌধুরী খোকন। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হলেন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী মোহাম্মদ জোবায়ের।

সূত্রে প্রকাশ, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের চার নেতার সঙ্গে ‘বৈঠকের’ পর পরই চট্টগ্রামের সাতকানিয়া পৌরসভা নির্বাচন থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা দিলেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী এডভোকেট এজেডএম মঈনুল হক চৌধুরী খোকন। মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে ‘ব্যক্তিগত ও দলীয় কারণে’ বিএনপি প্রার্থীর হঠাৎ প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্তে এই পৌরসভা থেকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হলেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোহাম্মদ জোবায়ের।

মাঈনুলের প্রার্থিতা প্রত্যাহারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রিটার্নিং অফিসার আতাউর রহমান।

তবে ঠিক কী ধরনের ‘ব্যক্তিগত ও দলীয় কারণে’ মঈনুল হক চৌধুরী খোকন এই সিদ্ধান্ত নিলেন— সেটি নিয়ে সাতকানিয়ার স্থানীয় রাজনীতিতে চলছে নানা জল্পনা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসা একটি ছবি নতুন একটি প্রশ্নের সৃষ্টি করছে, মাঈনুল হক কি শুধুই প্রার্থিতা ছেড়েছেন, নাকি দলটাও ছাড়াতে যাচ্ছেন?

ওই ছবিতে দেখা যায়, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া এবং তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদের মাঝখানে মধ্যমণি হয়ে দাঁড়িয়ে আছেন বিএনপির মেয়রপ্রার্থী এডভোকেট এজেডএম মঈনুল হক চৌধুরী খোকন।

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে চট্টগ্রামের একটি রেস্টুরেন্টে বৈঠকটি বসে বলে একাধিক সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

সূত্র জানাচ্ছে, নির্বাচনের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের ঠিক আগ মুহূর্তে আওয়ামী লীগের চারজন কেন্দ্রীয় নেতার সঙ্গে এই সাক্ষাতেই মূলত নির্বাচন থেকে বিএনপি প্রার্থী খোকনের সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্তটি আসে। তবে দলবদল খোকনের জন্য নতুন কিছু নয়। এর আগেও বিএনপি ছেড়ে এলডিপির রাজনীতিতে সম্পৃক্ত হয়েছিলেন তিনি। পরে এলডিপি থেকে ফিরে এবারের সাতকানিয়া পৌরসভা নির্বাচনে নেন বিএনপির মনোনয়ন।

এসব কারণে এর আগেই অবশ্য বিএনপির মনোনীত এই মেয়র প্রার্থী খোকনকে বয়কটের ঘোষণা দেয় দলীয় নেতা-কর্মীরা।

গত রোববার (২৪ জানুয়ারি) সকালে সাতকানিয়া উপজেলা পরিষদ গেইটে পৌরসভা বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদল আয়োজিত এক প্রতিবাদ সভায় খোকনের নির্বাচনী প্রচারণাসহ সকল ধরনের কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে নিষেধ করা হয় নেতা-কর্মীদের।

নেতারা অভিযোগ করে বলেন, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক আবু সুফিয়ান কারও সঙ্গে কোনো ধরনের কথা না বলেই এলডিপি নেতা মঈনুল হক চৌধুরী খোকনের নাম প্রস্তাব করে কেন্দ্রে পাঠিয়ে দেন। অথচ স্থানীয় রাজনীতিতে তার কোন অবস্থান নেই।

এসব প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে এজেডএম মঈনুল হক চৌধুরী খোকনের সঙ্গে কয়েক দফা যোগাযোগের চেষ্টা করেও সফল হওয়া যায়নি।

আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ ধাপে সাতকানিয়া পৌরসভায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *