চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ৭ ডিসেম্বর ২০২১

admin

মিয়ানমারে দ্বিতীয় দিনের মতো রাস্তায় হাজারো বিক্ষোভকারী

প্রকাশ: ২০২১-০২-০৭ ১৮:০১:৪১ || আপডেট: ২০২১-০২-০৭ ১৮:০১:৫০

বিদেশ ডেস্ক|
মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থান ও নির্বাচিত নেত্রী অং সান সু চির আটকাদেশের প্রতিবাদে দ্বিতীয় দিনের মতো বিক্ষোভ চলছে। রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে ইয়াঙ্গুনের রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করছেন কয়েক হাজার মানুষ।

সকালে মাওলামাইন ও মান্ডালেও ছোট ছোট বিক্ষোভের খবর পাওয়া গেছে। খবর বিবিসির

ইয়াঙ্গুনের প্রতিবাদকারীরা লাল বেলুন নিয়ে নেমেছেন, এই রঙটি সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসি পার্টির (এনএলডি) প্রতিনিধিত্ব করে এবং তারা ‘আমরা সামরিক স্বৈরাচার চাই না! আমরা গণতন্ত্র চাই!’ শ্লোগান দিচ্ছেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

রাস্তার মাঝখান দিয়ে এনএলডির পতাকা দুলিয়ে ‘থ্রি-ফিগার’ স্যালুট দিয়ে মিছিল করে যাচ্ছেন তারা। এই ‘থ্রি-ফিগার’ স্যালুট একটি অভ্যুত্থান বিরোধী প্রতীক হয়ে উঠেছে। গাড়ির চালকরা হর্ন বাজাচ্ছেন ও যাত্রীরা সু চির ছবি উঁচু করে ধরে আছেন।

মায়ো উইন (৩৭) নামে এক বিক্ষোভকারী বলেছেন, আমরা গণতন্ত্র ফিরে না পাওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাব। 

ইয়াঙ্গুন বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছাকাছি দাঙ্গা পুলিশ সাঁজোয়া যান নিয়ে অবস্থান নিয়েছে।
শনিবার দেশটির প্রধান শহর ইয়াঙ্গুনে কয়েক হাজার মানুষ সামরিক শাসনের প্রতিবাদে রাস্তায় বিক্ষোভ করেন। ‘মিলিটারি শাসন ব্যর্থ, গণতন্ত্র জিতেছে’ এমন স্লোগান দেন বিক্ষোভকারীরা। গত সোমবার সামরিক অভ্যুত্থানের পর শনিবারই প্রথম মিয়ানমারের সড়কে এত বড় আকারে বিক্ষোভ দেখা যায়।

সকালের মাঝামাঝিতে দক্ষিণপূর্বাঞ্চলীয় শহর মাওলামাইনে মোটরসাইকেলে করে প্রায় ১০০ লোক রাস্তায় নেমে আসে, মধ্যাঞ্চলীয় শহর মান্দালয়ে শিক্ষার্থী ও চিকিৎসকরা কেন্দ্রস্থলে জড়ো হচ্ছেন।
দক্ষিণপূর্বের আরেকটি শহর কারেন রাজ্যের পায়াথোনজুতে কয়েকশ লোক সারারাত একটি পুলিশ স্টেশনের সামনে অবস্থান নিয়ে ছিল। সকাল হওয়ার পরও তারা সেখানে দাঁড়িয়ে গণতন্ত্রপন্থি গান গাইছিল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *