চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩

admin

ইতিবাচক মনোভাব ও আত্মবিশ্বাসের সমন্বিত প্রচেষ্টায় শিক্ষার্থী কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারেঃ ইউএনও শরিফ উল্ল্যাহ

প্রকাশ: ২০২২-০৮-০৮ ১৯:১৯:৩৩ || আপডেট: ২০২২-০৮-০৮ ১৯:১৯:৩৬

লোহাগাড়া(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি|
লোহাগাড়ার উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরিফ উল্যাহ বলেছেন, বিগত কয়েক বছর ধরে মাদরাসা শিক্ষার্থীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে  ভর্তি পরীক্ষায় মেধা তালিকায় অবস্থান করে ইতিহাস করেছেন, ফলে মাদরাসা শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার্জনে আত্মবিশ্বাস অনেক গুন বেড়ে গেছে। সুতরাং মাদরাসা শিক্ষার্থীদের হীনমন্যতায় ভোগার আর কোনো সুযোগ নেই। লক্ষ্য নির্ধারণ, ইতিবাচক মনোভাব ও আত্মবিশ্বাসের সমন্বিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারো।

রবিবার (৭আগষ্ট) উপজেলার আমিরাবাদ ফাতিমাতুযযাহরা (রা.) মহিলা মাদরাসায় পবিত্র  মুহাররম ও আশুরার তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা সভা ও হিফয সাবিনা সম্পন্নকারী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান তিনি উপরোক্ত কথা বলেন ।

ইউএনও শরিফ উল্ল্যাহ অসংখ্য উপমা দিয়ে শিক্ষার্থীদের উৎসাহ প্রদান করেন।  তিনি মাদরাসার পরিবেশ ও তথ্যপ্রযুক্তি সমৃদ্ধ আধুনিক শিক্ষা ও শিক্ষার্থীদের সাংস্কৃতিক পরিবেশনা দেখে ভূয়শী প্রশংসা করেন।

মাদরাসা বিভাগ এবং হিফয বালক, বালিকা  শাখার শিক্ষার্থীদের সমন্বয়ে ২ অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন অত্র প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ ইবরাহীম ছিদ্দিকী।

প্রথম অধিবেশনে বিশেষ অতিথি ছিলেন লোহাগাড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ নুরুল ইসলাম। প্রধান আলোচক ছিলেন আধুনগর ইসলামিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা আবু মুসা মোহাম্মদ খালেদ জামিল।

দ্বিতীয় অধিবেশনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, লোহাগাড়া উপজেলার চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত)এম. ইব্রাহিম কবির।
বিশেষ অতিথি ছিলেন আমিরাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস. এম. ইউনুচ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বলেন, এ প্রতিষ্ঠানের সার্বিক বিষয় অবলোকন করে আমি পুলকিত হয়েছি।
তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো, অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম সত্যিই  প্রশংসার দাবি রাখে। ভবিষ্যতে এ  প্রতিষ্ঠানের এমপিওকরণ-সহ ও সার্বিক কল্যাণে তিনি আন্তরিক ভূমিকা রাখার বিষয়ে আশ্বস্থ করেন।

দ্বিতীয় অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপজেলা চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) এম. ইব্রাহিম কবির বলেন, আমার উপজেলা জুড়ে আমি ইভটিজিং এর বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছি, লোহাগাড়া উপজেলাকে আমি মাদক ফেন্সিডিল, জোয়া ও সন্ত্রাসমুক্ত করে একটি মডেল উপজেলার দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে চাই।
মাদরাসা শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আগের  যুগে মাদরাসা শিক্ষার্থীদেরকে গরিব, অসহায় ও এতিম ভাবা হতো।
কিন্তু তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর এই আধুনিক যুগে মাদরাসা শিক্ষার গুরুত্ব অনেক বেড়েছে। মাদরাসা শিক্ষার্থীরা বর্তমানে কোনো অংশেই পিছিয়ে নেই। মাদরাসায় পড়ালেখার জন্য অতীতে মেধাহীন, রোগা এবং মানতের ছেলে মেয়েদের দেওয়া হলেও বর্তমানে অভিজাত শ্রেণির সন্তানরাও মাদরাসায় পড়ালেখা করছে। বর্তমান আধুনিক বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে মাদরাসা শিক্ষার্থীদেরকে আত্মবিশ্বাস নিয়ে দেশ ও সমাজ গড়ার ভূমিকায় এগিয়ে যেতে হবে। সবশেষে উপজেলা চেয়ারম্যান (ভারপ্রাপ্ত) অত্র প্রতিষ্ঠানে গভীর নলকূপ স্থাপন‌ এবং মাদরাসা সংলগ্ন জরাজীর্ণ রোডটি পীচ ঢালাই করে দেয়ার দৃঢ় আশ্বাস দেন।

প্রতিষ্ঠানের সহকারী শিক্ষক মাওলানা আব্দুল্লাহ হাফিযের সঞ্চালনায় উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠানের উপাধ্যক্ষ মাওলানা রবিউল আহসান। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পরিষদের সদস্য ও অর্থ উপদেষ্টা মোঃ সিদ্দিক আহমদ।

এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক সমকাল প্রতিনিধি ও বীরকণ্ঠ সম্পাদক কাইছার হামিদ, আধুনগর ইসলামিয়া কামিল মাদরাসার অধ্যাপক আব্দুল খালেক, ইউপি সদস্য শরফু সিকদার, মাস্টার মোস্তাক আহমদ, হাজী আবু তাহের, নুরুল হোসেন সওদাগর, মোঃ জহির ও হেলাল উদ্দিন প্রমূখ।

পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত, আরবি, বাংলা ও ইংরেজি ভাষায় বক্তব্য, দেশাত্মবোধক সংগীতসহ বিভিন্ন বিষয়ে শিক্ষার্থীদের পারফর্মেন্স ছিল চোখে পড়ার মতো।
অনুষ্টান শেষে হিফয (সবিনা) সম্পন্নকারী শিক্ষার্থীদেরকে এবং সংশ্লিষ্ট শিক্ষককে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *