চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪

admin

সাতকানিয়ায় চকলেটের প্রলোভনে শিশু ধর্ষণের ঘটনায় আসামি গ্রেপ্তার| বীরকণ্ঠ

প্রকাশ: ২০২২-১২-১৩ ১০:৩৬:১১ || আপডেট: ২০২২-১২-১৩ ১০:৩৬:১৬

সাতকাবিয়া(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি|

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় সাত বছরের শিশু ধর্ষণ মামলার আসামি মো. ইউচুপকে (৪৭) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-৭। গ্রেপ্তার ইউচুপ সাতকানিয়ার খাগরিয়া ইউনিয়নের গণি পাড়ার বক্কর বাড়ির মৃত সোনা মিয়ার ছেলে।

রবিবার (১১ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ৩টায় ফেনী মডেল থানাধীন ঢাকা-চট্টগ্রাম রোডের রামপুর এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাব-৭ এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নুরুল আবছার।

তিনি বলেন, ‘গত মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুরে উপজেলার খাগরিয়া ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাঙ্গু নদী তীরের ভরাখাল এলাকায় এক শিশু ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। পরে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে অভিযুক্ত মো. ইউচুপ ও তার পরিবার। বুধবার (৭ ডিসেম্বর) ধর্ষণের শিকার ওই শিশুর মা বাদী হয়ে সাতকানিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।’

মামলার অভিযোগে ওই নারী বলেন, আমার মেয়ে খাগরিয়া ফৌজদার ঘোনা নুরানী মাদ্রাসার শিশু শ্রেণির শিক্ষার্থী। এ বছর আমার মেয়ে বার্ষিক পরীক্ষা দিচ্ছিল। মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) দুপুরের দিকে আমার মেয়েটি হাতে একটি ১০ টাকার নোট নিয়ে কেঁদে কেঁদে ঘরের দিকে আসছিল। তার হাতে টাকা দেখে মেয়েকে আমি মারধর করি। পরে ঘরে নিয়ে কান্নার কারণ জিজ্ঞাসা করলে সে পুরো ঘটনা জানায়। আমার মেয়েকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে ফুসলিয়ে খাগরিয়া ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সাঙ্গু নদী তীরের ভরাখাল এলাকায় নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করে ইউচুপ। ঘটনার রাতে আমার মেয়ের গায়ে জ্বর উঠে যায়। আমার মেয়ে এখন মৃত্যুর শয্যায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি আছে। এ ঘটনায় আমি মামলা দায়ের করেছি। আমি তার বিচার চাই।

নুরুল আবছার বলেন, ‘এ ঘটনায় গতকাল দিবাগত রাত ৩টায় ফেনী মডেল থানাধীন ঢাকা-চট্টগ্রাম রোডের রামপুর এলাকা থেকে মামলার একমাত্র আসামি ইউছুপকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাকে সংশ্লিষ্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *