চট্টগ্রাম, , শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

admin

মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় জমিয়তুল ফালাহ মসজিদে ঈদ জামাত| বীরকণ্ঠ

প্রকাশ: ২০২৩-০৪-২২ ১৩:৩২:২৭ || আপডেট: ২০২৩-০৪-২২ ১৩:৩২:৩১

ডেস্ক রিপোর্ট |
জমিয়তুল ফালাহ্ জাতীয় মসজিদ প্রাঙ্গণে সিটি করপোরেশনের আয়োজনে ঈদের নামাজে অংশ নিয়েছেন হাজারো ধর্মপ্রাণ মুসলমান।

শনিবার (২২ এপ্রিল) সকাল ৮টায় পবিত্র ঈদ উল ফিতর এর প্রথম ও প্রধান এ জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জামাতে ইমামতি করেন জমিয়তুল ফালাহ মসজিদের খতিব হযরতুল আল্লামা সৈয়দ আবু তালেব মোহাম্মদ আলাউদ্দীন আল কাদেরী।

এরপর সকাল ৯টায় দ্বিতীয় জামাত অনুষ্ঠিত হয়। দ্বিতীয় জামাতে ইমামতি করেন জমিয়তুল ফালাহ্ মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মৌলানা আহমুদুল হক।

দোয়া ও মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনায় আল্লাহর দরবারে ফরিয়াদ জানায় হাজারও হাত। গুনাহ থেকে মুক্তি এবং দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনা করা হয়। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, তাঁর পরিবার, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করা হয়। সব মৃত ব্যক্তির কবরের আজাব থেকে মুক্তির দোয়া করা হয়েছে। যে কোনো বিপদ থেকে দেশকে হেফাজতের জন্য প্রার্থনা করা হয়েছে। খতিব ও ইমাম বাংলাদেশকে সকল ষড়যন্ত্রের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য দোয়া করেন। ফিলিস্তিনসহ গোটা বিশ্বের নিপীড়িত মুসলমানদের জন্য প্রার্থনা করা হয়। এ সময় ‘আমিন আমিন’ ধ্বনিতে মুখরিত হয় জমিয়তুল ফালাহ প্রাঙ্গণ।

খুতবায় রোজা ও ঈদের তাৎপর্য তুলে ধরেন জমিয়তুল ফালাহ মসজিদের খতিব হযরতুল আল্লামা সৈয়দ আবু তালেব মোহাম্মদ আলাউদ্দীন আল কাদেরী। তিনি বলেন, বাংলাদেশ শান্তি সম্প্রীতির দেশ। এদেশে সব ধর্মের মানুষ সম্প্রীতি নিয়ে বসবাস করে। শান্তি-সম্প্রীতি নষ্ট হয়, আমরা এমন উস্কানিমূলক বক্তব্য পরিহার করবো।

এছাড়া নগরে চসিকের তত্ত্বাবধানে সকাল ৮টায় লালদীঘি চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন শাহী জামে মসজিদ, সুগন্ধা আবাসিক এলাকা জামে মসজিদ, হযরত শেখ ফরিদ (র.) চশমা ঈদগাহ মসজিদ, চকবাজার সিটি করপোরেশন জামে মসজিদ, জহুর হকার্স মার্কেট জামে মসজিদ, দক্ষিণ খুলশী (ভিআইপি) আবাসিক এলাকা জামে মসজিদ, আরেফীন নগর কেন্দ্রীয় কবরস্থান জামে মসজিদ, সাগরিকা গরুর বাজার জামে মসজিদ ও মা আয়েশা সিদ্দিকী চসিক জামে মসজিদে (সাগরিকা জহুর আহমদ চৌধুরী স্টেডিয়াম সংলগ্ন) ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

নগরের ৪১টি ওয়ার্ডে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের তত্ত্বাবধানে ১টি করে প্রধান ঈদ জামাত নিজ নিজ এলাকার মসজিদ ও ঈদগাহে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *