চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২০ মে ২০২৪

admin

লোহাগাড়ায় আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে ভবন উচ্ছেদের চেষ্টা|বীরকণ্ঠ

প্রকাশ: ২০২৪-০৪-০৫ ১৩:০১:১২ || আপডেট: ২০২৪-০৪-০৫ ১৩:০১:১৩

লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি| চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার আধুনগর খাঁন হাট বাজারে আদালতের নির্দেশনা অমান্য করে পাকা ভবন উচ্ছেদের অপচেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার।

সম্প্রতি একটি রেস্টুরেন্টে সংবাদ সম্মেলন করে ভুক্তভোগী ডা: শামসুল হক এ অভিযোগ করেন। তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, আধুনগর বাজারের পাল পাড়া সড়কের প্রবেশমূখে ১৯৭৯ সালে দুই তলা পাকা ভবন নির্মাণ করে আমি অদ্যবধি ব্যবসা পরিচালনা করে আসছি। ভবনটি আমার পৈত্রিক সম্পত্তির উপর নির্মিত। ২০০৭ সালে একটি কুচক্রী মহল পূর্ব শত্রুতার জের ধরে ভবনটি খাস জায়গা উল্লেখ করে উপজেলা প্রশাসনকে উচ্ছেদের আবেদন করেন। একই বছর আমি আদালতে আমার খতিয়ানভুক্ত পৈত্রিক সম্পত্তি দাবী করে মামলা দায়ের করি। দীর্ঘ শুনানির পর জায়গা পরিমাপ করে দুই দফা তদন্ত শেষে ২০০৯ সালে আদালত আমার খতিয়ান ভুক্ত জায়গা বলে রায় দেয়। একই সাথে উক্ত জায়গার উপর নির্মিত ভবন স্থিতি রাখতে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দেন। এখনো তা বলবৎ রয়েছে। এমতাবস্থায় এ বছর ৮ ফেব্রুয়ারী জেলা প্রশাসক কর্তৃক আমার খতিয়ান ভুক্ত জায়গায় স্থিত ভবনটি উচ্ছেদ করার নোটিশ জারি করে। এতে আমি হতবাক হই। নিশ্চয়ই কুচক্রী মহল আদালতের নির্দেশনা গোপন করে মিথ্যে ও ভিত্তিহীন তথ্য দিয়ে আমাকে হয়রানী করার জন্য নোটিশ প্রদানের ব্যবস্থা করেছেন। আমি বার বার হয়রানী থেকে মুক্তি পেতে জাতীর বিবেক সাংবাদিকদের শরণাপন্ন হলাম। যাতে বিষয়টি যথাযথ কর্তৃপক্ষের নজরে আসে ।

সংবাদ সম্মেলনে ডা: শামসুল হকের পুত্র শহিদুল ইসলাম, লোহাগাড়া আওয়ামী মৎসজীবি লীগের সাধারণ সম্পাদক হারুনূর রশিদ রাসুসহ কর্মরত সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *