চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

admin

কারাগারে খুবই বিপন্ন অবস্থায় রয়েছে ধর্ষক রাম রহিম

প্রকাশ: ২০১৭-০৯-০২ ০৯:৫৮:০৩ || আপডেট: ২০১৭-০৯-০২ ০৯:৫৮:০৩

বিদেশ ডেস্ক রোহতক কারাগারে খুবই বিপন্ন অবস্থায় রয়েছে ধর্ষক রাম রহিম। তার সঙ্গে একই সেলে থাকা একজন কয়েদী ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকাকে বলেছেন, জেলে গত ক’দিনে একটুও ঘুমায়নি স্বঘোষিত ওই ধর্মগুরু। 

 

দুই শিষ্যাকে ধর্ষণের মামলায় দোষী সাব্যস্ত রাম রহিমকে গত ২৮ অগস্ট ২০ বছরের কারাদণ্ড দেয় ভারতের আদালত। বিলাসবহুল জীবন থেকে তার ঠাঁই হয় রোহতকের সুনারিয়া জেলের ছোট্ট একটা কুঠুরিতে। সেখানে সার্বক্ষণিক পাহারায় নিয়োজিত চার কারারক্ষী।সদ্য কারামুক্তি পাওয়া বন্দি স্বদেশ কিরাদকে উদ্ধৃত করে আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, রাম রহিমের কারণে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে একই সেলে থাকা অন্য বাসিন্দারা।

 

কিরাদ দাবি করেন, জেলে যাওয়ার পরে প্রথম পাঁচ দিন একটুও ঘুমোননি রাম রহিম। নিজে যেমন ঘুমোননি তেমনি ঘুমোতে দেননি ওই সেলের অন্য বন্দিদেরও।তিনি কেবল কেঁদেই চলেন। তবে তার কান্নায় আক্ষেপ

 

রাম রহিম জেলের মধ্যে সেভাবে কিছু খাচ্ছে না বলেও জানিয়েছেন স্বদেশ। সে  কেবল দুধ, চা, পানি, বিস্কুট খাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। রোহতকের সোনারিয়া জেলের ভিতরে রাম রহিমকে কোন রকম ভিআইপি সুবিধা দেওয়া হচ্ছে না বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।

রাম রহিমের সাজা ঘোষণাকে কেন্দ্র করে জ্বলে ওঠে হরিয়ানা-পাঞ্জাব। কয়েকদিনের সহিংসতায় প্রাণ হারান ৩৮ জন ভারতীয়।

 

কারাগারে খুবই বিপন্ন অবস্থায় রয়েছে ধর্ষক রাম রহিম

 

 

 

 

বিদেশ ডেস্ক রোহতক কারাগারে খুবই বিপন্ন অবস্থায় রয়েছে ধর্ষক রাম রহিম। তার সঙ্গে একই সেলে থাকা একজন কয়েদী ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকাকে বলেছেন, জেলে গত ক’দিনে একটুও ঘুমায়নি স্বঘোষিত ওই ধর্মগুরু।

 

দুই শিষ্যাকে ধর্ষণের মামলায় দোষী সাব্যস্ত রাম রহিমকে গত ২৮ অগস্ট ২০ বছরের কারাদণ্ড দেয় ভারতের আদালত। বিলাসবহুল জীবন থেকে তার ঠাঁই হয় রোহতকের সুনারিয়া জেলের ছোট্ট একটা কুঠুরিতে। সেখানে সার্বক্ষণিক পাহারায় নিয়োজিত চার কারারক্ষী।সদ্য কারামুক্তি পাওয়া বন্দি স্বদেশ কিরাদকে উদ্ধৃত করে আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, রাম রহিমের কারণে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে একই সেলে থাকা অন্য বাসিন্দারা।

 

কিরাদ দাবি করেন, জেলে যাওয়ার পরে প্রথম পাঁচ দিন একটুও ঘুমোননি রাম রহিম। নিজে যেমন ঘুমোননি তেমনি ঘুমোতে দেননি ওই সেলের অন্য বন্দিদেরও।তিনি কেবল কেঁদেই চলেন। তবে তার কান্নায় আক্ষেপ

 

রাম রহিম জেলের মধ্যে সেভাবে কিছু খাচ্ছে না বলেও জানিয়েছেন স্বদেশ। সে  কেবল দুধ, চা, পানি, বিস্কুট খাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। রোহতকের সোনারিয়া জেলের ভিতরে রাম রহিমকে কোন রকম ভিআইপি সুবিধা দেওয়া হচ্ছে না বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।

রাম রহিমের সাজা ঘোষণাকে কেন্দ্র করে জ্বলে ওঠে হরিয়ানা-পাঞ্জাব। কয়েকদিনের সহিংসতায় প্রাণ হারান ৩৮ জন ভারতীয়।

 

কারাগারে খুবই বিপন্ন অবস্থায় রয়েছে ধর্ষক রাম রহিম

 

বিদেশ ডেস্ক রোহতক কারাগারে খুবই বিপন্ন অবস্থায় রয়েছে ধর্ষক রাম রহিম। তার সঙ্গে একই সেলে থাকা একজন কয়েদী ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকাকে বলেছেন, জেলে গত ক’দিনে একটুও ঘুমায়নি স্বঘোষিত ওই ধর্মগুরু। 

 

দুই শিষ্যাকে ধর্ষণের মামলায় দোষী সাব্যস্ত রাম রহিমকে গত ২৮ অগস্ট ২০ বছরের কারাদণ্ড দেয় ভারতের আদালত। বিলাসবহুল জীবন থেকে তার ঠাঁই হয় রোহতকের সুনারিয়া জেলের ছোট্ট একটা কুঠুরিতে। সেখানে সার্বক্ষণিক পাহারায় নিয়োজিত চার কারারক্ষী।সদ্য কারামুক্তি পাওয়া বন্দি স্বদেশ কিরাদকে উদ্ধৃত করে আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে, রাম রহিমের কারণে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে একই সেলে থাকা অন্য বাসিন্দারা।

 

কিরাদ দাবি করেন, জেলে যাওয়ার পরে প্রথম পাঁচ দিন একটুও ঘুমোননি রাম রহিম। নিজে যেমন ঘুমোননি তেমনি ঘুমোতে দেননি ওই সেলের অন্য বন্দিদেরও।তিনি কেবল কেঁদেই চলেন। তবে তার কান্নায় আক্ষেপ

 

রাম রহিম জেলের মধ্যে সেভাবে কিছু খাচ্ছে না বলেও জানিয়েছেন স্বদেশ। সে  কেবল দুধ, চা, পানি, বিস্কুট খাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। রোহতকের সোনারিয়া জেলের ভিতরে রাম রহিমকে কোন রকম ভিআইপি সুবিধা দেওয়া হচ্ছে না বলেও নিশ্চিত করেন তিনি।

রাম রহিমের সাজা ঘোষণাকে কেন্দ্র করে জ্বলে ওঠে হরিয়ানা-পাঞ্জাব। কয়েকদিনের সহিংসতায় প্রাণ হারান ৩৮ জন ভারতীয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *