চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

admin

নারীরা সেলাই প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে

প্রকাশ: ২০১৭-১০-০৭ ২০:২৩:৪৫ || আপডেট: ২০১৭-১০-০৭ ২০:২৩:৪৫

মিজবাউল হক, চকরিয়া:  সেলাই কাজ শিখে নিজের পায়ে দাঁড়াতে চাই। সংসারে বাড়তি আয় দরকার। কাজটা খুব ভালো। তাই প্রশিক্ষণ নিয়ে পরিবারের হাল ধরতে হবে। মেয়েরা এখন অনেক রকমের কাজ করে। আবার সংসারও চালায়। তাতে সংসারে অভাব থাকে না। ছেলে-মেয়ে মানুষ করা সহজ হয়। এভাবে কথা গুলো তুলে ধরলেন সেলাই কাজে প্রশিক্ষণ নিতে আসা প্রতিবন্ধী রোজিনা বেগম। 

 

জাপানী সংস্থা জাইকার অর্থায়নে দুস্থ’ মহিলাদের সেলাই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে জীবনমান উন্নয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। উপজেলার হতদরিদ্র ২০জন নারীকে বিনামূল্যে সেলাই প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন সংস্থাটি। ৩০কর্মদিবসের মাধ্যমে প্রশিক্ষণ দিয়ে এসব নারীদের দক্ষ করে তোলা হবে। উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়া বেগম শম্পার তত্বাবধানে এসব নারীদের সেলাই প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

 

এরআগে প্রথম পূর্বে নারী উন্নয়ন ফোরাম থেকে ২৭জন, দ্বিতীয় পূর্বে প্রধানমন্ত্রীর তহবিল থেকে ৩৫জন নারীকে বিনামূলে সেলাই প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়।  প্রশিক্ষণ পাওয়া নারীরা সেলাই কাজ শিখে এখন তারা আত্মনির্ভরশীল হয়েছে। উপজেলা পরিষদের একটি কক্ষে ২০নারীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

 

জয় বুটিক এর কর্ণধার প্রশিক্ষক খুকি চৌধুরী বলেন. হতদরিদ্র নারীরা এখান থেকে সেলাই কাজ শিখে স্বাবলম্বী হতে পারবে। তাদের আয় দিয়ে পরিবার চালাতে সমস্যা হবে না। তারা এখান শিখে গ্রামে গ্রামে অন্য নারীদের সেলাই প্রশিক্ষণ দিতে পারবে। প্রশিক্ষণে আসা নারীদের প্রতিদিন যাতায়ত ভাড়া দেওয়া হচ্ছে।

 

উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সাফিয়া বেগম শম্পা বলেন, সেলাই প্রশিক্ষণ নেওয়া নারীরা সংগ্রামী ও ত্যাগী। তারা সংগ্রামী করছে। তাদের সাফল্য সমাজের অন্য নারীদের পথ দেখাবে। সে জন্যই নারীকে এখান থেকে সেলাই প্রশিক্ষণ নিয়ে স্বাবলম্বী হয়ে নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *