চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ৬ মে ২০২১

মিজবাউল হক চকরিয়া অফিস

চকরিয়ায় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে খাদে সিএনজি, পা ভাঙল চালকের!

প্রকাশ: ২০২০-০৩-৩০ ২১:০৭:৪৫ || আপডেট: ২০২০-০৩-৩০ ২১:০৭:৪৯

মিসবাউল হক, চকরিয়া থেকে :

কক্সবাজারের চকরিয়ায় পুলিশের ধাওয়া খেয়ে সিএনজি অটোরিক্সা উল্টে মিজান বাদশা (৩৫) নামে চালকের পা ভেঙ্গে গুরুতর আহত হয়েছেন। গতকাল সোমবার সকাল ১০টার দিকে হারবাং ইউনিয়নের নাথ পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। এসময় আহত সিএনজি চালক মিজানকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। পরে তার অবস্থা গুরুতর হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। তার পায়ের একটি হাড় ভেঙ্গে যায় বলে জানান তার স্বজনরা।

আহত মিজান উত্তর হারবাং গয়ালমারা চম্পাতলি এলাকার আবদুল করিমের ছেলে।

আহত মিজান বলেন, সকাল ৯টার দিকে গয়ালমারা এলাকা থেকে একজন রোগী নিয়ে মহাসড়কের বরইতলী নতুন রাস্তার মাথা এলাকায় এসে নামিয়ে দিই। যাত্রী নামিয়ে দিয়ে বাড়িতে চলে যাওয়ার সময় হারবাং স্টেশন এলাকায় ব্যারিকেট দেয় হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির এসআই পার্সিত চাকমা। এসময় গাড়ি জব্দ করে টাকা দাবী করেন। টাকা নেই বলে চলে যেতে চাইলে এসআই পার্সিত মোটর সাইকেল নিয়ে ধাওয়া করে। একপর্যায়ে পুলিশের ভয়ে অভ্যন্তরীণ সড়কে ঢুকে পড়লে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশ্ববর্তী খাদে পড়ে গেলে গুরুতর আহত হই। এরপরও পুলিশ আমাকে মারধর করেন। পরে স্থানীয় লোকজন আমাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। আমার একটি পা ভেঙ্গে যায়।

স্থানীয় লোকজন দাবী করে, এসআই পার্সিত হারবাং পুলিশ ফাঁড়িতে যোগদানের পর থেকে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। অভ্যস্তরীণ সড়কে চলাচলকারী টমটম, ব্যাটারী চালিত রিক্সা ও সিএনজি অটোরিক্সা আটক করে টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেয়। এসআই পার্সিত বলেন, সিএনজি অটোরিক্সা সিগন্যাল দিলে চালক পালিয়ে যাওয়ার সময় খাদে পড়ে আহত হয়। এ ব্যাপারে হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইন্সপেক্টর মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, এসআই পার্সিত অপরাধ করলে তার দায় সে নেবে। ঘটনা সত্য হলে আপনারা লিখেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *