চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ৭ মে ২০২১

আব্বাস হোছাইন আফতাব রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি, চট্টগ্রাম।

খাদ্য সামগ্রীর সাথে করোনার সচেতনতামূলক বার্তা পাঠালেন এক প্রবাসী

প্রকাশ: ২০২০-০৪-১৪ ২৩:৫৮:৩৭ || আপডেট: ২০২০-০৪-১৪ ২৩:৫৮:৪৩

আব্বাস হোসাইন আফতাব, রাঙ্গুনিয়া:

রাঙ্গুনিয়া পৌর এলাকায় কর্মহীন নিম্ন আয়ের মানুষকে করোনা থেকে বাঁচতে নানা সচেতনতামূলক বার্তা দেয়ার পাশাপাশি চাল,ডাল, আলুসহ নানা নিত্য পণ্যের প্যাকেট পাঠিয়েছেন এ রহমান গ্রুপের চেয়ারম্যান প্রবাসী এম কোরবান আলী। রোববার(১২ এপ্রিল) রাতে রাঙ্গুনিয়া পৌরসভার সৈয়দবাড়ি এলাকায় ১৭০ জন কর্মহীন নিম্ন আয়ের মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে খাদ্য সামগ্রী বিতরণে সহযোগিতা করেন স্থানীয় সামাজিক সংগঠন সৈয়দ পেশাজীবী পরিষদের কর্মকর্তা ও সদস্যরা । পরিষদের আহবায়ক রহিম উদ্দিন সিকদার ও যুগ্ম আহবায়ক মো. আবু সায়েম বলেন, ” করোনাকালে প্রবাসী এম কোরবান আলীর ব্যক্তিগত এই উদ্যোগ প্রশংসনীয়। তিনি করোনাভাইরাস থেকে সাধারণ মানুষকে বাঁচাতে ঘরে ঘরে হাত ধোয়াসহ নানা সচেতনতামূলক বার্তা পাঠান প্রচারপত্রের মাধ্যমে। এই সময়ে এমন উদ্যোগ সত্যিই বিরল। প্রচারপত্রের সাথে মধ্যবিত্তদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিতে রাতের সময়টি বেছে নেয়া হয়। তাঁর এই সহায়তা নিতে অনেকেই সংকোচ করবেন মনে তিনি বিতরণে ছিলেন না। খাদ্য সামগ্রী বিতরণে কোনো ছবি তোলাও হয়নি। এই বিষয়ে” জানতে চাইলে প্রবাসী এম কোরবান আলী বলেন,” আমার গ্রামের মানুষকে করোনাভাইরাস থেকে বাঁচাতে ঘরে ঘরে প্রচারপত্র পাঠানো এখন খুবই জরুরী। প্রচারপত্রটি ঘরের যে কোনো একজন পড়তে পারলে পরিবার ও সবাইকে সচেতন করতে পারবেন। সাধারণ নিম্ন আয়ের মানুষদের সচেতন করা এখন খুবই জরুরী। তাঁরা ঘর থেকে বের হতে পারছেনা কাজ নেই, আর ওদের তো এখন খাবার দরকার। এই মূহুর্তে বিত্তবানদের তাঁদের পাশে থাকা জরুরী। ” প্রচারপত্রে দেখা যায়, বারবার সাবান দিয়ে হাত ধুতে ও সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে চলতে বলা হয়। বিনা প্রয়োজনে ঘরে থেকে বের না হতে এছাড়া করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে পরামর্শ ছাড়াও ১০ টি সচেতনতামূলক বার্তা প্রচারপত্রে উল্লেখ করা হয়। এই কার্যক্রমের বিষয়ে সৈয়দবাড়ি মানবাধিকার কমিশনের সভাপতি মাহাবুবুল আলম সিকদার বলেন, ব্যতিক্রমী এই উদ্যোগ এলাকার মানুষকে জাগিয়ে তুলেছে। বিত্তবানদের উচিত এই সময়ে উনার মতো অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *