চট্টগ্রাম, , রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

admin

লোহাগাড়ায় গভীর রাতে সহকারী জজের জায়গা দখলের চেষ্টা | বীরকণ্ঠ

প্রকাশ: ২০২৪-০৪-০১ ১৩:০০:১৩ || আপডেট: ২০২৪-০৪-০১ ১৩:০০:১৪

লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি: চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলা সদরের দরবেশ হাট ডিসি রোড সংলগ্ন এলাকায় এক সহকারী জজ ও তার পরিবারের জায়গা দখলের চেষ্টা করেছে এক দল দূর্বৃত্ত।

২৯ মার্চ দিনগত রাতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় লোহাগাড়া থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছে ক্ষতিগ্রস্থরা।

জানা যায়, নাজিম উদ্দিন প্রকাশ তরহা মলই ২০/৩০ জনের দল নিয়ে গভীর রাত থেকে সকাল পর্যন্ত টিনের ঘেরাও দিতে থাকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে মোহাম্মদ আবু হানিফ বাঁধা দিলে নাজিম উদ্দিন তাকে গালমন্দ করে এবং পরিবারের সদস্যদের হত্যার হুমকি দেয়। আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে নাজিম উদ্দিন প্রকাশ তরহা মলই লোকজন নিয়ে গা ঢাকা দেয়। এ ব্যাপারে আবু হানিফ লোহাগাড়া থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। ডায়রী নং- ১৩৬৪। আবু হানিফ লোহাগাড়া উপজেলার পশ্চিম কলাউজান ৬ নং ওয়ার্ডের হরিন আলী মিয়াজির বাড়ীর আবু তাহেরের পুত্র।

মোহাম্মদ আবু হানিফ বলেন, আমার পিতা আবু তাহের, চাচা আবু ছালেহ, মোহাম্মদ ছালেহ, ছালেহ আহমদ, চাচী হোসনে বেগম ও চাচাতো বোন সিলেট মৌলভীবাজার জজকোর্টের সহকারী জজ আয়েশা ছিদ্দীকা আয়মুনের নামে যৌথভাবে ২০১৬ সালে ২০ শতক জমি ক্রয় করে অদ্যবধি ভোগ দখলে আছি। স্থানীয় একজন আমাকে ফোন দিয়ে জানায় আমাদের জমিতে রাত থেকে ২০/৩০ জন লোক নিয়ে টিনের ঘেরাও দিচ্ছি একজন ভূমিদস্যু। ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি তরহা মলই জোর পূর্বক এমন কাজ করছেন। আমি তাকে বাঁধা দিলে সে গালমন্দ করে আমার পরিবারের লোকজনকে হত্যা, গুম ও অপহরণ করার হুমকী দিয়ে চলে যায়।

লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো: রাশেদুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে ভুক্তভোগীরা থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছেন। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আয়েশা ছিদ্দীকা আয়মুনের পিতা আবুল হাশেম বলেন, ২০১৬ সাল থেকে ভোগ দখলীয় জায়গায় অতর্কিতভাবে রাতের আঁধারে নাজিম উদ্দিন নামের এক ব্যক্তি টিনের ঘেরাও দিতে থাকে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এলে তারা গা ঢাকা দেয়। আমরা প্রশাসনকে অবহিত করেছি।

উল্লেখ্য, নাজিম উদ্দিন প্রকাশ তরহা মলইর নামে একাধিক ভূমিদস্যুতার অভিযোগ রয়েছে। একাধিক বার জেলও কেটেছেন বলে স্থানীয়রা জানান। অভিযুক্ত নাজিম উদ্দিন মুঠোফোন রিসিভ না করায় তার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয় নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *