চট্টগ্রাম, , রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১

Alauddin Lohagara

ভরাডুবির পথে আ.লীগ-বিএনপি

প্রকাশ: ২০১৭-১২-২১ ২১:৪৫:৩৬ || আপডেট: ২০১৭-১২-২১ ২১:৪৫:৩৬

বীর কন্ঠ ডেস্ক:

রংপুর সিটি করপোরেশন (রসিক) নির্বাচনে ভরাডুবির পথে দেশের প্রধান দুই রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দলীয় প্রার্থীরা। দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করেও এই দুই দলের প্রার্থীরা শোচনীয় পরাজয় বরণ করতে যাচ্ছেন আলোচিত এই নির্বাচনে।

আজ বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) সকাল থেকে অনুষ্ঠিত হয় রসিক নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। বিকাল ৪টার সময় ভোটগ্রহণ শেষে শুরু হয় ভোট গণনা। এরই মধ্যে ১৯৩টি কেন্দ্রের মধ্যে স্থানীয় সূত্রে ১১৫টি কেন্দ্রের ফলাফলে অবিস্মরণীয় জয়ের পথে রয়েছেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা। এই ১১৫ কেন্দ্রে তার প্রাপ্ত ভোট ১ লাখ ৮ হাজার ৬২৬। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের শরফ উদ্দিন আহমদ ঝন্টু পেয়েছেন ৩৯ হাজার ৭৪৬ ভোট। আর বিএনপি প্রার্থী পেয়েছেন ২০ হাজার ১২৩ ভোট। ফলে স্পষ্টতই রংপুর সিটির নতুন নগরপিতা হতে যাচ্ছেন জাতীয় পার্টির মোস্তফা।

জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের জন্মস্থান রংপুর আগাগোড়াই লাঙলের ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত হওয়ায় এই ফল অনুমতি বলেও ধারণা করছিলেন বিশ্লেষকরা। চূড়ান্ত ফল ঘোষণার অনেক বাকি থাকলেও তাই ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার কিছু সময় পরেই প্রকারান্তরে পরাজয় মেনে নিয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দলের এক সংবাদ সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘রংপুরে আমরা হারলেও গণতন্ত্রের বিজয় হবে। দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন কমিশন যে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন করতে পারে, তা রেকর্ড বুকে স্থান করে নেবে।’ এই নির্বাচনকে বিএনপির জন্য একটি বার্তা বলেও মনে করছেন ক্ষমতাসীন দলের সাধারণ সম্পাদক।

নির্বাচনের বিষয়ে বিএনপি এখনও কোনও আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করেনি বা প্রতিক্রিয়া জানায়নি। জানা গেছে, দলটি শুক্রবার রসিক নির্বাচনের বিষয়ে তাদের প্রতিক্রিয়া জানাবে। তবে দলের মেয়র প্রার্থী কাওসার জামান বাবলা রাত ৯টার দিকে রংপুরের দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এই নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করার ঘোষণা দেন। –বাংলা ট্রিবিউন

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *